প্রতীকী ছবি

কলকাতা: কলকাতার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের কাজ করতে গিয়ে বউবাজার অঞ্চলে বেশ কিছু বাড়িতে ধস নেমেছে৷ যার ফলে চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সেই সব বাড়িতে বসবাসকারীরা৷ তবে সেই সব মানুষদের আপাতত কিছুটা স্বস্তি দিল মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে মঙ্গলবার নবান্নের বৈঠক৷ কারণ তাঁর উদ্যোগের এই বৈঠকে ইঙ্গিত মিলেছে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে৷

মঙ্গলবার ধসের ফলে বেশ কয়েকটি বাড়িতে ফাটল দেখা গিয়েছিল। ফলে ওই সব বাড়ির বাসিন্দারদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে অন্যত্র৷ তারপরে এদিন নবান্নে বৈঠক ডাকা হয় এইসব বিষয়ে আলোচনা করতে৷ সেখানে মুখ্যমন্ত্রী বক্তব্য, কার দোষ কার গুণ এটা এখন দেখার সময় নয়৷ তিনি একদিকে যেমন প্রকল্পের কাজ শেষ করার কথা বলেছেন তেমনই আবার এই বাড়ি ভেঙে পড়া মানুষগুলিকে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও বলেছেন৷

সেক্ষেত্রে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা মেট্রোকেই করে দিতে হবে৷ এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, বাড়ির বদলে বাড়ি করে দেওয়া হবে৷ এছাড়া আপাতত বাড়ি ভাড়ার ব্যবস্থা করার এবং তাঁদের বাড়ি ভাড়ার খরচ যাতে দেয় মেট্রো কর্তৃপক্ষ । এইসব ব্যাপারে মেট্রো কর্তৃপক্ষেরও সম্মতি রয়েছে বলে তিনি জানান। যে সমস্ত দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাঁদের নতুন দোকান করে দেওয়ার কথা বলা হয় এদিন৷

এমনকি তিনি পরিবার পিছু এককালীন ৫ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেন মঙ্গলবারের বৈঠকে। একটা গাইড লাইনের উপর ভিত্তি করেই দেখা হবে সমস্ত কাজ। মেট্রো কর্তৃপক্ষ চাইলে সবরকম সহযোগিতা রাজ্য সরকার করবে বলে আশ্বাস দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । মুখ্যমন্ত্রীর অভিমত, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে মেট্রোর কাজ করা উচিত ছিল।

এদিকে , এই পরিস্থিতিতে সব মিলিয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ শুরু হতে অন্তত ১ বছর দেরি হতে পারে ৷ তবে মেট্রোর কোনও রুট পরিবর্তন করা হবে না বলে বৈঠকে জানিয়েছেন ইস্ট -ওয়েস্ট মেট্রোর আধিকারিকেরা ।