কলকাতা: ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে৷ বাঙালির ঘরে দুয়ারে কান পাতলে উৎসবের বাদ্যি শোনা যাচ্ছে৷ সে বাজনাই শোনা গেল ভবানীপুর ৭৫ পল্লীতে৷ উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়৷

 ৫১ বছরে পা দিল দক্ষিণ কলকাতার এই অন্যতম সেরা পুজো৷ জুতা আবিষ্কারের ঘটনাকে থিম Mamta Banerjee, CM of WB at the inauguration of Bhowanipur 75 Palli Sarbojanin Durgotsab - 22করেই তাদের এবারের পুজোর আয়োজন ৷ রবি ঠাকুরের কবিতার দৌলতে যে ঘটনার কথা আপামর বাঙালি জানা, সেটিই এবার চোখের সামনে তুলে এনেছেন শিল্পী বিল্টু ও বাপ্পা নাগ৷ আর পুরোটাই হয়েছে টিসুপেপার দিয়ে৷ টিসুপেপার দিয়ে তৈরি এই শিল্পকে বলে টিসুমকারি৷ সেই শিল্পেই শহরবাসীকে চমকে দিতে তৈরি ছিল ভবানীপুর ৭৫ পল্লি৷ প্রথমার পুণ্যলগ্ন থেকে সকলেই দেখতে পাবেন সেই কাজ

থিম, পুজো, মণ্ডপের পাশাপাশি নানারকম সামাজিক কাজেও যুক্ত থাকে এই পুজোকমিটি৷ এবছরটাও তার ব্যতিক্রম নয়৷ ক্লাবের সেক্রেটারি সুবীর দাশ জানিয়েছেন,  পুজোয় পাওয়া টাকার একাংশ প্রতিবারের মতে এবারও শীতে বস্ত্রদান , বাচ্চাদের পড়াশোনার সরঞ্জাম দান ও অনান্য কাজে খরচ করা হবে৷

মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে শুরু হয়ে গেল এই পুজোকমিটির এবারের উৎসব যাপন৷  আনন্দের পসরা সাজিয়ে মণ্ডপের দুয়ার খুলেছে ভবানীপুর ৭৫ পল্লিও৷ অতএব  দুগগা দুগগা বলে শুরু বাঙালির ঠাকুর দেখার পালাও৷