ফাইল ছবি

নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: আবার বিক্ষোভের মুখে বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এবার ভোট দিতে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তিনি। তাঁর অভিযোগ তৃণমুলের বিরুদ্ধে।

রবিবার শেষ দফায় জোড়াসাঁকোতে ভোট দিতে যান বাবুল সুপ্রিয়। আর সেখানেই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে একদল লোক। তাঁদের অভিযোগ, বাবুলের জনভ লাইনে অনেক ক্ষণ দাঁড়াতে হচ্ছে। বাবুলকে ঘিরে ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও দেওয়া হয়।

যদিও এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন, নিয়ম মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বাবা-মা’ও। অভিযোগ উঠতে পারে ভেবেই তিনি মিডিয়াকে বের করে দেন লাইন থেকে। বাবুলের দাবি, তিনি বুধ থেকে বেরিয়ে বেশ কিছুটা দূরে এসে তবেই ‘বাইট’ দেন সংবাদমাধ্যমকে।

কিন্তু সেখানেই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ শুরু হয়ে যায়। প্রাথমিকভাবে মনে করা হয়, স্থানীয় ভোটাররাই বিক্ষভ দেখাচ্ছেন। কিন্তু বাবুল সুপ্রিয়’র অভিযোগ, স্থানীয় নয়, সবাই ছিল তৃণমূলের গুণ্ডা।

এর আগে চতুর্থ দফায় আসানসোলে ভোটের দিন হামলা হয়েছিল বাবুলের গাড়িতে। আসানসোলের বারাবনিতে হামলা হয় বাবুলের গাড়িতে। ভেঙে দেওয়া হয় গাড়ির কাঁচ। অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

এরপর উত্তর ২৪ পরগণায় ভোট প্রচারে গিয়েও হামলার শিকার হন বাবুল। সেখান থেকে ফেরার সময় কদম্বগাছিতে এই হামলা হয় বলে অভিযোগ বাবুলের। তাঁর রক্ষীর গাড়িতে হামলা চালায় কিছু দুষ্কৃতী।

গাড়ির সামনের কাঁচ ভেঙে দেওয়া হয়। বাবুল জানিয়েছিলেন, একটি লোক তাঁকেও এসে ঘুসি মেরেছে। তবে রাস্তার ঝামেলা রাস্তাতেই মেটাতে চান তিনি। কোনও এফআইআর করতে চান না।