প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: ফের রণক্ষেত্র হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া।

পুলিশি তল্লাশির নামে ব্যবসায়ীদের উপর জুলুমের অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভাটপাড়া এলাকা। শুক্রবার রাতে এলাকায় দুষ্কৃতী লুকিয়ে আছে বলে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে জগদ্দল থানা ও ভাটপাড়ার পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ যৌথ ভাবে ভাটপাড়া এলাকায় তল্লাশি শুরু করে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীদের অভিযোগ যে পুলিশ গভীর রাতে ব্যবসায়ীদের কিছু না জানিয়ে তল্লাশির নামে তাদের দোকানে তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়েছে। ফলে ক্ষতির মুখে পড়েছেন ওই এলাকার সাধারণ ব্যবসায়ীরা। এই কারনে ব্যবসায়ীরা শনিবার সকাল থেকেই দফায় দফায় পুলিশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে থাকেন এবং পুলিশের এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে ঘোষ পাড়া রোড অবরোধ করেন। ব্যবসায়ীদের এই অবরোধ তুলতে গেলে পুলিশের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। অবরোধ তোলার জন্য পুলিশ অবরোধকারী দের ওপর লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ।

এই ঘটনার ফলে এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। অপরদিকে পুলিশের অভিযোগ যে অবরোধ তুলতে গেলে অবরোধকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়তে থাকে এবং এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি পুলিশের গাড়িতে ও হামলা চালিয়ে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করে।

এরপরেই পুলিশ ধাওয়া করে অবরোধ তুলে দেয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ভাটপাড়া এলাকায় নামানো হয়েছে কমব্যাট ফোর্স। এই ঘটনার জেরে ভাটপাড়া এলাকায় জায়গায় জায়গায় বসানো হয়েছে পুলিশি পিকেট। চলছে পুলিশি টহলদারিও। কোথাও ব্যবসায়ীদের কোন জমায়েত দেখলেই তাড়া করে সেই জমায়েত হটিয়ে দিচ্ছে পুলিশ। শনিবার ভাটপাড়া এলাকার এই উত্তেজনার কারণে ভাটপাড়া বাজারের সমস্ত দোকান ছিল বন্ধ।