নয়াদিল্লি: আগামী সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্টে ফের উঠবে অযোধ্যা মামলা৷ তার আগে শুক্রবার নতুন সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করলেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ৷ নতুন বেঞ্চে যুক্ত করা হয়েছে বিচারপতি অশোক ভূষণ ও বিচারপতি আবদুল নাজিরকে৷ প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন পূর্বতন সাংবিধানিক বেঞ্চের দুই সদস্য বিচারপতি এসএ বোবদে ও বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ও থাকছেন নতুন বেঞ্চে৷ ২৯ জানুয়ারি মামলাটি উঠবে সুপ্রিম কোর্টে৷

আগের সাংবিধানিক বেঞ্চের বিচারপতি ইউ ইউ ললিত এই মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন৷ তাঁর থাকা নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন মুসলিম পক্ষের আইনজীবী৷ কারণ দু’দশক আগে আইনজীবী থাকাকালীন অনুরূপ একটি মামলায় উত্তরপ্রদেশের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিংয়ের হয়ে আদালতে সওয়াল করেছিলেন ছিলেন বিচারপতি ইউইউ ললিত৷ সেই কারণে নীতিগতভাবে এই মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি৷

ফলে নতুন করে বেঞ্চ গঠন করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়৷ নয়া বেঞ্চে হবে অযোধ্যা মামলার শুনানি৷ তাছাড়া এই মামলার যে সাড়ে আট হাজার ডকুমেন্ট আছে সেগুলির সব ইংরেজিতে অনুবাদ করা নেই বলেও আদালতকে জানানো হয়৷ তার জন্য কিছু সময়ের প্রয়োজন৷ আশা করা হচ্ছে ২৯ জানুয়ারির মধ্যে সব অনুবাদ হয়ে যাবে৷

অযোধ্যা মামলার শুনানি বারবার পিছিয়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ ও হতাশ হিন্দু সংগঠনগুলি৷ তারা প্রতিদিন এই মামলার শুনানির দাবি জানিয়েছেন৷ ক্ষোভের সঙ্গে রাম বিলাস বেদান্তি জানিয়েছিলেন, ইচ্ছাকৃতভাবে এই মামলার শুনানি পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ প্রথমে ৪ জানুয়ারি মামলার শুনানির তারিখ ঠিক হল৷ তারপর পিছিয়ে হল ১০ জানুয়ারি৷ আবার ১০ জানুয়ারি থেকে পিছিয়ে হল ২৯ জানুয়ারি৷ এরপর বলা হবে ফেব্রুয়ারি মাসে হবে শুনানি৷ ‘তারিখ পে তারিখ’ হচ্ছে, বিচার হচ্ছে না৷