নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে বন্ধ রয়েছে সিনেমা হল। এবার সিনেমা হল খোলার তোড়জোড় শুরু করেছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। অগাস্ট মাস থেকেই দেশজুড়ে সিনেমা হল চালু করে দেওয়ার ব্যাপারে সচেষ্ট হয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের কর্তারা।

ইতিমধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে এব্যাপারে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অমিত শাহের মন্ত্রক এব্যাপারে সবুজ সঙ্কেত দিলে আগামী অগাস্ট মাস থেকেই দেশজুড়ে সিনেমা হল চালু হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

গোটা দেশে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। গত কয়েকদিন সংক্রমিতের সংখ্যা দৈনিক ৫০ হাজারের কাছে পৌঁছেছে।

করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রুখতে প্রায় ৫ মাস ধরে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধ৷ হল বন্ধ থাকায় বহু ছবির রিলিজ থমকে রয়েছে৷ বাধ্য হয়ে অনলাইন প্ল্যাটফর্মেও বেশ কিছু ছবি রিলিজ করা হয়েছে৷ করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের শুরু থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সিনেমা হলগুলি।

তবে এবার দেশের বন্ধ সিনেমা হলগুলি খুলে দেওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। অগাস্ট মাসে সিনেমা হলগুলি খোলার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে সেই প্রস্তাব পাঠিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের কর্তারা। অমিত শাহের মন্ত্রক সেই প্রস্তাব অনুমোদন করলে অগাস্টেই খুলে যাবে সব সিনেমা হল৷

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সচিব জানান, সিনেমা হল চালু করা যাবে কিনা সেবিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। অগাস্ট মাসে সিনেমা হল খোলার ব্যাপারে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

করোনা ঠেকাতে সিনেমা হলে কী ব্যবস্থা থাকবে, তারও একই খসড়া তৈরি করা হয়েছে৷ অগাস্টের শুরুতে আর তা না হলে শেষের দিকে সিনেমা হল চালুর প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে৷

সিনেমা হলগুলিতে সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ববিধি মানা থেকে শুরু করে অন্য সব ধরনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা রাখা হবে বলে জানিয়েছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। সিনোমা হলগুলির যে রো-তে দর্শক বসবেন ঠিক তার পরের রো খালি থাকবে৷

এরই পাশাপাশি একজন দর্শকের বসার পর কমপক্ষে ২ মিটার জায়গা ফাঁকা রাখতে হবে। তবে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের এই পরিকল্পনার সঙ্গে একমত নন বহু হলমালিক। তাঁদের দাবি, এভাবে ব্যবসা চালালে তাঁদের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।