কৃষ্ণনগর: তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনের ঘটনার তদন্তে নামছে সিআইডি৷ ইতিমধ্যে ভবানী ভবন থেকে সিআইডির এক টিম ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে৷ পুলিশের সঙ্গে যৌথ ভাবে তারা তদন্ত করবে৷ করবে তথ্য সংগ্রহ৷ জানা গিয়েছে, যে বন্দুক দিয়ে কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ককে গুলি করা হয়েছে সেটি ফরেন্সিকের কাছে পাঠানো হবে৷

এদিকে লোকসভা ভোটের মুখে সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর৷ কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক খুনের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ একটি বাংলা সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় শিক্ষামন্ত্রী জানান, তিনি মর্মাহত৷ সদ্যপ্রয়াত কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক তাঁর খুবই ঘনিষ্ঠ সহকর্মী ছিলেন৷ পাশাপাশি তিনিও এই খুনের পিছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে দাবি করেন৷ জানান, বিজেপির প্ররোচনাতেই খুন হতে হয়েছে সত্যজিৎকে৷ মানুষ এর জবাব দেবে৷ বিজেপির খুনের রাজনীতির বিরুদ্ধে বাংলার মানুষ রুখে দাঁড়াবে৷

অপরদিকে তৃণমূলের তোলা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি৷ জানিয়েছে, প্রয়োজনে সিবিআই তদন্ত করুক৷ তাহলে সত্যিটা বেরিয়ে আসবে৷ তৃণমূলের নিজেদের মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে এই খুন৷ এর আগে জয়নগরে বিধায়কের উপর হামলার ঘটনার সময় বিজেপিকে জড়ানো হয়েছিল৷ বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘এই খুনের নিন্দা করছি৷ সিবিআই তদন্ত হলে আপত্তি নেই৷ দেখা যাবে তৃণমূলের লোকই খুন করেছে৷’’