ওয়াশিংটন: মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই আমেরিকায় মিসাইল হামলা চালাতে পারে উত্তর কোরিয়া। এমই আশঙ্কা প্রকাশ করলেন সিআইএ ডিরেক্টর মাইক পম্পিও। বিবিসি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, প্রতিনিয়ত পিয়ংইয়ং ও কিম জং উনের মিসাইল হামলার আশঙ্কা নিয়ে আলোচনা চলে মার্কিন গোয়েন্দাদের মধ্যে।

তিনি বলেন, আমেরিকায় যে কোনও সময় মিসাইল হামলা চালাতে সক্ষম উত্তর কোরিয়া। তবে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কোনও আঘাত করা চেষ্টা করলে তার কড়া প্রতিক্রিয়া হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে মার্কিন ফোর্স মোতায়েন করলে প্রচুর প্রানহানি হতে পারে। এতে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানেরও ক্ষতি হতে পারে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এইসব প্রতিক্রিয়ার কথা ভেবেই কোনও ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না। তবে কিম জং উনের পরমাণু মিসাইল নিক্ষেপ করার ক্ষমতা কমাতে হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ট্যুইটেই উত্তর কোরিয়াকে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই বার্তা কিমের বুঝে যাওয়া উচিৎ বলে মনে করেন তিনি।

অন্যদিকে, নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়া সত্ত্বেও উত্তর কোরিয়ায় তেল পাঠিয়েছে চিন। আর সেই খবরে রীতিমত ক্ষুব্ধ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি চিনের এই ব্যবহারে রীতিমত হতাশ বলে জানিয়েছেন। ট্যুইট করে তিনি জানিয়েছেন, চিনকে হাতে-নাতে ধরে ফেলেছেন তিনি। কিছুদিন আগে ট্রাম্প বলেন, উত্তর কোরিয়াকে তেল পাঠাতে থাকলে কোনোদিনই সমস্যার সমাধান হবে না। এর কিছুদিন আগেই রাষ্ট্রসংঘে উত্তর কোরিয়ার উপর এই নয়া নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। যার মধ্যে পিয়ংইয়ং-কে ৯০ শতাংশ পেট্রোল পাঠানো বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক মিসাইল তৈরি ও পরীক্ষার প্রবণতা কমানোর জন্যই এমন কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা