ব্রিজটাউন: বিস্ফোরক! বিধ্বংসী! বোমারু! শেষ কয়েক ম্যাচে গেইলের ব্যাটিং তান্ডব দেখে তাঁর ইনিংসের প্রশংসায় এই সব শব্দই খরচ করছে ক্রিকেটমহল৷

শেষ তিন ইনিংসে ৩০টি ছয়, ১৫টি চার হাঁকিয়েছেন ‘ইউনির্ভাল বস’ ক্রিস গেইল৷ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই তিন ইনিংসে নামের পাশে রয়েছে ১৬২,৫০ ও ১৩৫ রান৷ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিশ্বকাপের পরই ব্যাট তুলে রাখবেন৷ রানের স্বাদ পেয়ে এবার সিদ্ধান্ত বদল গেইলের৷

আরও পড়ুন- বিদায়বেলায় এমনটা সত্যিই প্রাপ্য ছিল না মেহতাবের

দেশের জার্সিতে দীর্ঘদিন পর ফিরে ব্যাট হাতে বোলারদের এভাবে নাস্তানাবুদ করার পর অবসর ভাবনাকে দূরে ঠেলে দিলেন গেইল৷ বিশ্বকাপের বিসর্জনের পরই অবসর নয়৷ নতুন ইঙ্গিতে সেটাই জানিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান৷ অর্থাৎ চলতি বছর ‘ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দৈত্য’ গেইলকে নতুন অবতারে বোলারদের ঘুম কাড়তে দেখা যাবে এমন আশা করাই যায়৷

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চতুর্থ ওয়ান ডে ম্যাচে ৯৭ বলে ১৬২ রানের ইনিংস খেলে উঠে গেইল বলেন, ‘ বয়সের সঙ্গে শরীর ভাঙে৷ সেকারণেই কেরিয়ারের শেষ লগ্নে টি-টোয়েন্টিতে মন বসিয়েছিলাম৷ পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটে ফিরে রানের স্বাদ পেয়ে রানের খিদে বেড়ে গেল৷ পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটের জন্য শরীরকে আরও বেশি করে প্রস্তুত করছি৷ বিশ্বকাপের পরই অবসর নয়৷ আরও কিছু ইনিংসের মধ্যে দিয়ে ফ্যানদের এন্টারটেইন করার ইচ্ছে রয়েছে৷ শরীর সঙ্গ দিলে বিশ্বকাপের পরও ফ্যানেরা গেইল শো দেখতে পাবেন৷’

আরও পড়ুন- মিনার্ভা ম্যাচে স্প্যানিশ তারকা ছাড়াই পরীক্ষা ইস্টবেঙ্গলের

উল্লেখ্য শেষ কয়েক বছরে দেশ বিদেশের টি-টোয়েন্টি লিগেই গেইলকে ব্যস্ত থাকতে দেখা গিয়েছে৷ দেশের জার্সিতে সুযোগ না পাওয়াতেই বিদেশের নামি ক্রিকেট লিগে চুটিয়ে খেলেন ৩৯ এর গেইল৷ এবার বিশ্বকাপের আগে (প্রায় সাত মাস পর) দেশের জার্সি গায়ে চাপানোর সুযোগ পেয়ে নিজের ব্যাটিংকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছেন৷ সেকারণে তাঁকে নিয়ে ফ্যানেদের প্রত্যাশা অনেক৷ আর সেই প্রত্যাশা পূরণের জন্যই এবার নিজের অবসরের সিদ্ধান্ত ভাঙতেও প্রস্তুত ক্রিকেটের ‘ইউনিভার্সাল বস’৷

আরও পড়ুন- মেহতাবের বিদায়ী ম্যাচে অ্যারোজের কাছে আত্মসমর্পণ বাগানের