নাগপুর: স্বঘোষিত ‘চৌকিদারে’র জেল হবেই৷ নিশ্চিৎ রাহুল গান্ধী৷ বিজেপি বিরোধী প্রচারে রাফায়েল যুদ্ধ বিমান চুক্তিকে হাতিয়ার করেছেন কংগ্রেস সভাপতি৷ হুঁশিয়ারির দিয়ে বলেছেন, ‘‘ক্ষমতায় এলে রাফায়েল নিয়ে তদন্ত হবে৷ আর জেলে যেতে হবে ‘চৌকিদার’কে৷’’

আরও পড়ুন: পাকিস্তানকে বড়সড় ধাক্কা দিয়ে তার সামরিক ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিল ভারত

শুক্রবার নাগপুরে প্রচার সভা করেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ তুলে ধরেন দলের প্রকাশিত ইস্তেহারের নানা প্রতিশ্রুতির কথা৷ সেখানেই রাহুল জোরের সঙ্গে জানান, মনমোহন সিংয়ের সময় রাফায়েল যুদ্ধ বিমান কিলতে যে চুক্তি হয়েছিল তা বদল করে দিয়েছে মোদী সরকার৷ তাঁর প্রশ্ন কোন স্বার্থে এই কাজ করল সরকার তার কোনও জবাবই নেই৷

এদিনের প্রচারে কংগ্রেস সভাপতি পরিসংখ্যান দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করেন আর্থিক দুর্নীতির দিকটি৷ রাহুল বলেন, ‘‘প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নথি থেকে স্পষ্ট, নরেন্দ্র মোদি নথি পরিবর্তন করেছেন এবং প্রত্যেকটি ফাইটার জেট কিনেছিলেন ১,৬০০ কোটি টাকা দিয়ে।’’’ মোদী সরকারকে কোণঠাসা করতে কংগ্রেস সভাপতি প্রয়াত প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিক্করের মন্তব্যকেও প্রচারসভায় তুলে ধরেন৷

রাফায়েল যুদ্ধ বিমান তৈরিতে কেন অনিল আম্বানীকে বরাত দেওয়া হল তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন রাহুল গান্ধী৷ তিনি মনে করেন জাতিতে গুজরাটি হওয়ার জন্যই মোদী আম্বানিকে এই সুবিধা পাইয়ে দেবেন৷ বাসিন্দা হওয়াতেই তাঁর কথায়, ‘‘যে কোম্পানি দেউলিয়া সেই সংস্থাকে বরাত দেওয়া হচ্ছে৷ ডাল মে কুছ কালা তো হ্যায়ই৷ তোনও মতে দাদা মুকেশ বাইতে বাঁচিয়েছেন৷ কিন্তু তদন্ত হলে মোদী থেকে ওই ব্যবসায়ী কেউ রেহাই পাবে না৷’’

আরও পড়ুন: যে কোনও আক্রমণের কড়া জবাব দিতে প্রস্তুত ভারত: নির্মলা সীতারামন

নাগপুরে ভোট লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দিন ১১ই এপ্রিল৷ এই কেন্দ্র থেকেই লড়ছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি৷ বিপক্ষে কংগ্রেসের নানা পটলে৷ তার হয়েই এদিন প্রচার সভা করেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ প্রচারে, প্রকাশিত ইস্তেহারের ন্যায় প্রকল্প, কৃষকদের আয়ের কথা, রোজগার নিশ্চিৎকরণের প্রতিশ্রুতির কথাও তুলে ধরেন তিনি৷