নয়াদিল্লি: চৌকিদার নিয়ে সরগরম জাতীয় রাজনীতি৷ শাসক-বিরোধী দু’পক্ষেরই প্রচারের হাতিয়ার চৌকিদার৷ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী অনেকদিন আগেই নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে চৌকিদার চোর হ্যায় স্লোগান তুলেছেন৷ লোকসভা ভোটের মুখে সেই চৌকিদার স্লোগানে কেল্লা ফতে করতে চাইছে বিজেপি৷ তাদের নয়া স্লোগান ‘ম্যায় ভি চৌকিদার’৷

গতবার লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ‘অচ্ছে দিন’ এর স্লোগানে মজেছিল আম জনতা৷ এবার ভোটের মুখে তাদের স্লোগান ‘ম্যায় ভি চৌকিদার’৷ শনিবার মাইক্রো ব্লগিং সাইট ট্যুইটারে ‘ম্যায় ভি চৌকিদার’ ক্যাম্পেন শুরু করেছেন নরেন্দ্র মোদী৷ রবিবার সকালে ট্যুইটারে নিজের নামের আগে চৌকিদার বসিয়ে নেন মোদী৷ যথারীতি এটাও এখন ট্যুইটারে নয়া ট্রেন্ড শুরু হয়েছে৷ মোদীর দেখাদেখি অন্যান্য বিজেপি নেতারাও তাদের নামের আগে চৌকিদার শব্দ বসিয়ে নিয়েছেন৷

বয়স তাঁর ৬৮৷ এই বয়সেও সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার কীভাবে করতে হয় তা নরেন্দ্র মোদীর থেকে ভালো কেউ জানেন না৷ একথা বললেও অত্যুক্তি করা হবে না৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারে অন্যান্য দলের সব বয়সী নেতারা তাঁর থেকে অনেক পিছিয়ে৷ মোদী কিছু ট্যুইট করা মানেই তা ট্রেন্ড হতে বেশি সময় লাগে না৷ এবার তিনি মাইক্রো ব্লগিং সাইটে যে নতুন ক্যাম্পেন শুরু করেছেন তা এখন টপ ট্যুইটার ট্রেন্ড৷ শুধু দেশে নয় বিদেশেও সমানভাবে এই ট্যুইট নতুন ট্রেন্ড সেট করেছে৷

শনিবার সকাল ৯টা৷ একটি ভিডিও শেয়ার করে ট্যুইট করেন মোদী৷ ভিডিওতে মোদী সরকার পাঁচ বছরে কী কাজ করেছে তার ব্যাখ্যা করা হয়েছে৷ হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখেন ম্যায় ভি চৌকিদার৷ সোশ্যাল মিডিয়াতে তিনি সবাইকে ম্যায় ভি চৌকিদার ক্যাম্পেনে অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানান৷  ট্যুইটটি পোস্ট করার মুর্হূতের মধ্যে সেটি ২৫ হাজার বার রিট্যুইট হয়েছে৷ ৭৫ হাজার লাইক পড়েছে৷ সময় যত বাড়বে লাইক শেয়ারের সংখ্যাও তত বাড়বে৷

ট্যুইটে মোদী নিজেকে চৌকিদার বলে সম্বোধন করে লেখেন, ‘‘আপনাদের চৌকিদার দেশের সেবার বদ্ধপরিকর৷ আমি একা নই৷ যারা দুর্নীতি, সামাজিক ব্যাধির বিরুদ্ধে লড়াই করে তারা সকলে চৌকিদার৷ দেশের উন্নয়নে যারা খেটে চলেছেন তারা সকলে চৌকিদার৷ আজ তাই সব ভারতীয় বলছে, ম্যায় ভি চৌকিদার৷ ভিডিওর শেষে বলা হয়েছে, যারা দেশের কথা চিন্তা করে তারা সকলে চৌকিদার৷