কী এমন ঘটালেন চিরাগ

পাটনা: প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষা বলছে, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নীতীশ কুমার পছন্দের দৌড়ে এগিয়ে। তবে এনডিএ জোটের প্রতি আস্থা কমছে। এনডিএ শরিক বিজেপি বলছে, ফলাফল যাই হোক। বিজেপি বেশি আসন পেলেও জেডিইউ নেতা নীতীশ কুমারকেই মুখ্যমন্ত্রী করা হবে।

আর সদ্য এনডিএ ত্যাগী নিজেকে নরেন্দ্র মোদীর ‘হনুমান’ বলে দাবি করা লোজপা প্রধান চিরাগ পাসোয়ানের হুমকি, আমাদের দল ক্ষমতায় এলেই নীতীশ কুমার কে জেলে পাঠাব। বক্সারে জনসভা থেকে লোক জনশক্তি পার্টির প্রধান চিরাগ পাসোয়ান বলেন, এই মুখ্যমন্ত্রী আসলে দুর্নীতিগ্রস্ত, এই মুখ্যমন্ত্রী বিহার কে বরবাদ করছেন, এই মুখ্যমন্ত্রী যুবকদের বিহার ছেড়ে বাইরে যেতে বাধ্য করেছেন।

যে রাজ্য কে বরবাদ করে তার স্থান জেলে হওয়া দরকার। আমি প্রতিজ্ঞা করছি, এলজেপি ক্ষমতায় এলে নীতীশ কুমার জেলে যাবেই। নির্বাচনে আসন সমঝোতা নিয়ে নাখুশ চিরাগ পাসোয়ান এনডিএ ছাড়েন। তারপর থেকে লাগাতার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকেই প্রতিদ্বন্দ্বী বানিয়ে হুঙ্কার দিচ্ছেন।

জানিয়েছেন, বিজেপির সঙ্গে বিরোধিতা নেই। তবে বিজেপি জানায় জেডিইউ নেতা নীতীশ কুমারকে না মানলে চিরাগ কে গ্রহণ করা হবে না। লোজপা প্রধান চিরাগ এরপর বিদ্রোহী বিজেপি ও জেডিইউ নেতাদের এলজেপি প্রার্থী করে চমক দেন।

সেই সঙ্গে সরকার বিরোধী মহাজোটের প্রধান শরিক আরজেডি দলের প্রতি সূক্ষ্ণ মৈত্রী বার্তা পাঠান। সবমিলে তিনি নিজের অবস্থানে ধোঁয়াশা তৈরি করেছেন। সদ্য প্রয়াত পিতা রামবিলাস পাসোয়ানের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

আপনি ‘পিতা সমান’ এই বলে তাঁর পা ছুঁয়ে চিরাগ আশীর্বাদ চান। বন্ধু রাম বিলাসের শেষকৃত্যে এসে আবেগতাড়িত ছিলে নীতীশ। তিনি চিরাগকে বলেন শক্ত হয়ে পরিবারের হাল ধরতে।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I