নয়াদিল্লি : মোদীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে চলতি বছরই ভারতে আসবেন চিনের প্রেসিডেন্ট। গত বছরের এপ্রিলে প্রথমবারের জন্য মুখোমুখি হয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও চিনের প্রেসিডেন্ট জি জিংপিং। এবার মোদীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে জিংপিং জানিয়ে দিলেন, এই বছরের শেষ দিকেই ভারতে আসবেন তিনি।
গত বছর ওয়াহানে দেখা হয়েছিল দুজনের। ওই বৈঠক সাফল্যমণ্ডিত হয়েছিল। তখনই মোদী তাঁকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ভারতে আসার জন্য। সম্প্রতি জিংপিং জানিয়েছেন এই বছরের শেষ দিকেই ভারতে আসবেন তিনি।

তিনি ভারতে আসবেন একটি শীর্ষ বৈঠকে যোগ দিতে। বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে একথা বৃহস্পতিবার জানানো হয়েছে। Shanghai Cooperation Organisation বা SCO শীর্ষ বৈঠকে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চিনের রাষ্ট্রপতির বৈঠকের পর জি জিনপিং একথা জানিয়েছেন। দু’দিনের বৈঠকে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী এদিন কিরগিজস্তানের বিশকেকে পৌঁছন। বিদেশ সচিব বিজয় কেশব গোখলে জানিয়েছেন, ‘‘মোদী জিংপিংকে ভারতে শীর্ষ বৈঠকে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। জিংপিং নিশ্চিত করে জানিয়েছেন তিনি ভারতে আসবেন। দুই দেশই তার প্রস্তুতি নিতে শুরু করবে।”

গত বছরের এপ্রিলে ওয়াহানের বৈঠকে দুই দেশের দুই শীর্ষ স্থানীয় নেতা তাঁদের বৈঠকে মাধ্যমে নিজেদের বিদেশ নীতি ও স্বরাষ্ট্র নীতিকে বোঝার সুযোগ পান। বৈঠকেই জিংপিং ভারতে আসার আমন্ত্রণে সাড়া দেন।

আজ বিশকেকে পৌঁছনোর পর মোদীর সঙ্গে ফের সাক্ষাৎ হয় জিংপিং-এর। গোখলে জানিয়েছেন, ২০ মিনিটের মতো কথা বলার সময় নির্ধারিত হলেও তার চেয়ে অনেক বেশি সময়ই কথা হয় দু’জনের। বিদেশ সচিব বলেন, ‘‘উভয় নেতার মধ্যে উষ্ণ ও আন্তরিক কথোপকথন হয়। মোদীকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, ওঁর প্রতি ভারতের মানুষের ভরসাই প্রতিফলিত হয়েছে নির্বাচনের ফলাফলে।” তাঁরা দু’জনেই একমত হন, ওয়াহানের বৈঠকের পরে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে নতুন মাত্রা তৈরি হয়েছে।