বেজিং: নতুন ধরনের ইলেকট্রনিক ওয়ারফেয়ার এয়ারক্রাফট তৈরি করছে চিন। অপেক্ষাকৃত দীর্ঘ যুদ্ধক্ষেত্রেও কাজ করতে পারবে এটি। এই এয়ারক্রাফট হাতে এলে চিনের নৌসেনা আরও শক্তিশালী হয়ে উঠবে, কারণ দক্ষিণ চিন সাগরও চলে আসবে আয়ত্তে। চিনা নৌসেনার সাউথ চায়না সি ফ্লিটেই মোতায়েন করা হয়েছে H-6G বম্বার।

১০ বছর ধরে তৈরি হয়েছে এই এয়ারক্রাফট। যাতে থাকবে, Electronic Countermeasures (ECM). ইলেকট্রিক ফাইটার শত্রুপক্ষের ইলেকট্রনিক জ্যামিং সিস্টেমে প্রভাব ফেলতে পারে। রাডার বা অন্যান্য এই ধরনের ডিভাইস কিছুক্ষণের জন্য বা চিরকালের জন্য খারাপ করে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও চিন একাধিক ফাইটার জেট তৈরি করেছে যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য। যেমন J-15 টাইপ ফাইটার জেট। চিনের বায়ুসেনার কাছে রয়েছে ওই যুদ্ধবিমান।