বেজিং: ভোট উৎসবে শেষ হাসি কে হাসবে, গত কয়েক মাস ধরে এই প্রশ্নের ইতিবাচক উত্তর পেতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল৷ প্রচারে প্রতিপক্ষকে তুলোধনা থেকে উন্নয়ন বা বিকাশে নিজের কাজের খতিয়ান বারবার তুলে ধরেছে দলগুলি৷ আজ বৃহস্পতিবার ২৩ মে-র সকাল থেকেই শুরু হয়েছে সেই উত্তর খোঁজার পালা৷ সময় যত এগোচ্ছে ততই একটু একটু করে ট্রেন্ড স্পষ্ট হচ্ছে৷

বিভিন্ন বুথ ফেরৎ সমীক্ষার ফলাফলে দেখা গিয়েছে গেরুয়া ঝড়৷ বিজেপি শিবিরের আত্মবিশ্বাসে তা যেন বাড়তি অক্সিজেন যোগায়৷ তবে বিরোধী পক্ষদের মধ্যে অনেকেই এই বুথ ফেরৎ সমীক্ষাকে ভরসা করতে রাজি নয়৷ তারা এক্ষেত্রেও বিজেপির প্রভাব দেখেছে৷ আর সেই সঙ্গে দলের কর্মী সমর্থকদের ভরসা রাখার কথাও বলেছেন৷ কিন্তু ২৩মে-র ট্রেন্ড এক্সিট পোলেই যেন জোর দিচ্ছে৷ আর গেরুয়া ঝড়ের এই আভাস পৌঁছে গিয়েছে দেশ ছেড়ে বিদেশেও৷

বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন কোণ থেকে যেমন মোদীর উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছাবার্তা আসছে৷ তেমনই অভিনন্দন আসছে বিদেশের মাটি থেকেও৷ চিনা প্রেসিডেন্ট জি জিংপিং-এর বার্তা, সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে মোদীর নেতৃত্বে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের জয়ে মোদীকে শুভেচ্ছা৷

সেই সঙ্গে ভারত-চিনের সুসম্পর্কের ওপরও জোর দিয়েছেন তিনি৷ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক, রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে উন্নয়ন থেকে একে অপরের ওপর ভরসাতেও জোর দেন চিনা প্রেসিডেন্ট৷ সেই সঙ্গে মোদীর শারীরিক সুস্থতা এবং সাফল্য কামনা করেছেন জি জিংপিং৷