বেজিংঃ  দলাই লামা ইস্যুতে ভারতকে ফের হুঁশিয়ারি চিনের! আপত্তি উড়িয়ে যেভাবে দলাই লামাকে ভারত আমন্ত্রণ জানিয়েছে তাতে ‘রেগে ফায়ার’ বেজিংয়।  চলতি মাসের গত ১৭ তারিখ বিহারের রাজগীরের নালন্দায় বৌদ্ধধর্মের ওপর আন্তর্জাতিক সেমিনারের সূচনা করেন ৮১ বছরের তিব্বতী এই ধর্মগুরু।  এই সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন দেশ-বিদেশের বিশেষজ্ঞরাও।  আর এই ঘটনা যে মোটেই ভালোভাবে নেয়নি চিন, তা বোঝাতে কড়া ভাবে ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে লালচিন।

চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র হুয়া চ্যুনিং বলেছেন, সম্প্রতি চিনের তীব্র বিরোধিতা, আপত্তি পুরোপুরি উড়িয়ে বৌদ্ধধর্ম সংক্রান্ত আলোচনাসভায় দলাই লামাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত।  ভারতের এই সিদ্ধান্ত মোটেই কাম্য নয়।  শুধু তাই নয়, চিন এর তীব্র বিরোধী।  আমরা  বলছি, ভারত যেন দলাই চক্রের স্পষ্ট চিন-বিরোধী বিভাজনকারী চেহারা বুঝে নেয়, তিব্বত ও সেই সংক্রান্ত প্রশ্নে আগের দেওয়া প্রতিশ্রুতি পালন করে, চিনের মৌলিক উদ্বেগকে সম্মান দিয়ে ভারত-চিন সম্পর্কে বাধা, প্রতিকূলতা এড়ানোর চেষ্টা করে।

১৯৫৯-এ চিনের তত্কালীন শাসকদের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান ব্যর্থ হওয়ার পর পালিয়ে ভারত পালিয়ে আসেন দলাই লামা।  এরপর থেকেই তাঁকে বিপজ্জনক বিচ্ছিন্নতাবাদী বলে মনে করে বেজিং।  কিছুদিন আগে চিন দলাইয়ের অরুণাচল প্রদেশে  সফর নিয়েও আপত্তি জানায় । চিন অরুণাচলকে দক্ষিণ তিব্বতের অংশ বলে দাবি করে আসছে।  চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র পরিষ্কার বলেন, দলাই লামার বিতর্কিত অঞ্চলে যাওয়া নিয়ে  তাঁদের প্রবল আপত্তি আছে।  যদিও চিনের সেই আপত্তি কানে না তুলে ভারতের তরফে পালটা জানিয়ে দেওয়া হয় যে, স্বাধীন দেশের কোনও নাগরিক কে কোথায় যাবে, তার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে।

- Advertisement -