বেজিং: ব্রিটেন সফরে গিয়ে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের কড়া সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ পাকিস্তানকে ‘সন্ত্রাস রফতানির কারখানা’ বলে উল্লেখ করেন তিনি৷ তার ঠিক একদিন পরেই আন্তর্জাতিক মহলকে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের পাশে থাকার ডাক দিল চিন৷

আরও পড়ুন: প্রভাবশালীদের সঙ্গে বিছানায় না শুলে সাংবাদিক হওয়া যায় না: বিজেপি নেতা

সোমবারই চিন রওনা দিচ্ছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷ সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের বৈঠকে যোগ দিতে বেজিং যাচ্ছেন সুষমা৷ ওই বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা পাকিস্তানেরও৷ সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করতে সাংহাই কপোর্রেশনের গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলিকে পাশে পাওয়ার চেষ্টা করবে ভারত৷ কিন্তু বৈঠক শুরুর আগে সন্ত্রাসবাদ প্রশ্নে পাকিস্তানের প্রতি চিন নরম মনোভাব দেখানোয় স্বাভাবিকভাবে তা অন্য মাত্রা পেল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল৷

আরও পড়ুন: পসকো আইন সংশোধন করে ধর্ষকদের মৃত্যুদণ্ডের ভাবনা কেন্দ্রের

এদিন চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্রের কাছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাকিস্তানকে নিয়ে করা মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া চাওয়া হয়৷ জবাবে হুয়া চুং ইয়াং বলেন, ‘‘এটা ঠিক যে গোটা বিশ্বের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠেছে সন্ত্রাসবাদ৷ সন্ত্রাসবাদ দমনে পাকিস্তান অনেক ব্যবস্থা নিয়েছে৷ তারা যা করেছে তাতে আশা করব আন্তর্জাতিক মহল ইসলামাবাদের পাশে থাকবে৷ এবং যথাযথ ব্যবস্থা নিতে পাকিস্তানকে সাহায্য করবে৷’’