বেজিং:  ভারতকে পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসাবে মনে করে না চিন। শুধু আজকে বলে নয়, কোনও দিনই বেজিং তা করেনি। এমনটাই জানিয়েছে চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র লু কাং। উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় বৈঠকের ব্যাপারে বলতে গিয়ে লু কাং এমনটা বলেন। চিনের এহেন মন্তব্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে সামরিক পর্যবেক্ষকরা।

চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্রকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, উত্তর কোরিয়াকে তাঁরা ভারত এবং পাকিস্তানের মতো পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসেবে মনে করেন কি না। তার উত্তরেই তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ভারত এবং পাকিস্তানকে তাঁরা কোনওদিনই পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসেবে মনেই করেননি। শুধু তাই নয়, এই ব্যাপারে তাঁদের অবস্থান কখনওই বদলাবে না বলেও তিনি সাফ জানিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের ৪৮ সদস্যের নিউক্লিয়ার সাপ্লায়ার্স গ্রুপ তথা এনএসজিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য ভারত বেশ কয়েকবার আবেদন জানিয়েছে। কিন্তু বারবার চিন তাতে বাধ সেধেছে। চিনের মতে, পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসেবে নিজেদের তুলে ধরতে হলে আগে ভারতকে নিউক্লিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি (এনপিটি)-তে সাক্ষর করতে হবে। সেটা না করে ভারত বা পাকিস্তান নিজেদের পরমাণু শক্তিধর দেশ হিসেবে দাবি করতে পারবে না।