বেজিং: চিনের আকাশে ঢুকে পড়েছিল ভারতীয় ড্রোন, ভেঙে পড়েছে সেটি। এমনই দাবি করেছে বেজিং। বৃহস্পতিবার চিনের সংবাদমাধ্যমের তরফে একথা জানানো হয়েছে। ডোকলামে দুই দেশের সেনাবাহিনীর সংঘাত মিটে যাওয়ার কয়েক মাসের মধ্যেই এরকম একটি খবর প্রকাশ্যে আনল চিন।

চিনের ‘ঝিংহুয়া’ নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, চিনের ওয়েস্টার্ন থিয়েটার কমব্যাট ব্যুরোর ডেপুটি ডিরেক্টর ঝাং শুইলি বলেছেন যে, ‘ভারত আমাদের সার্বভৌমত্বে হস্তক্ষেপ করেছে। এই ঘটনার তীব্র বিরোধিতা ও নিন্দা করছি।’ তবে ঠিক কখন, কোথায় ওই ঘটনা ঘটেছে তা জানায়নি বেজিং।

ঝাং আরও জানিয়েছেন, চিনের সেনাবাহিনী ভারতের এই পদক্ষেপে তৎপরতার সঙ্গে ব্যবস্থা করেছে। পেশাদারিত্ব ও দায়িত্বের সঙ্গে চিহ্নিত করেছে ওই ডিভাইস।

এদিকে, ডোকলামে রাস্তা তৈরি করা নিয়ে বিবাদ এখন অনেকটাই থিতিয়ে গেলেও এই বিষয়ে ভারত, চিন এবং রাশিয়ার মধ্যেকার কূটনৈতিক বিবাদ কিন্তু বিদ্যমান৷ ডোকলাম ইস্যুতে ভারত, রাশিয়া এবং চিন একটি ত্রিপাক্ষিক বৈঠক করতে চলেছে৷ এই বৈঠক উপলক্ষেই ভারতে আসছেন চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই৷

বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, এই বৈঠক উপলক্ষেই শুধু চিনের বিদেশমন্ত্রীই নন৷ রাশিয়ার বিদেশমন্ত্রী সারগে ল্যাভরভও আসছেন এই বৈঠকে৷ আগামী ১১ডিসেম্বর এই ত্রিপাক্ষিক বৈঠক হতে চলেছে৷ এই বৈঠকটি পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷ ডোকলাম সমস্যা চিরতরে কিভাবে সমাধান সম্ভব সেই বিষয়টিই যে বৈঠকের মূল আলোচ্য বিষয় হতে চলেছে তা কানাঘুঁষো ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে৷

তবে, ডোকলাম বিবাদ ছাড়াও বিশ্বের এবং আঞ্চলিক বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে চলেছে এই বৈঠকে৷ এর পাশাপাশি এই তিন দেশের মধ্যেকার পরিস্থিতি আরও উন্নত করতেই এই বৈঠক৷ ডোকলাম সমস্যার পর ভারত চিন এই দুই দেশের পরিস্থিতি উত্তপ্ত৷ যেকোনও মুহূর্তে বেঁধে যেতে পারে সংঘাত৷ সেই কারণে সতর্ক রয়েছে সীমান্তের নিরাপত্তারক্ষীরাও৷ এই সমস্যার সমাধানের বিষয়টি নিয়ে আলোকপাত করা হবে এই বৈঠকে৷

- Advertisement -