বেজিং: অরুণাচলপ্রদেশ দক্ষিণ তিব্বতের অংশ, এমনটাই মনে করে চিন তাই ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সফরে হস্তক্ষেপ টেনেছে। চিন স্পষ্ট জানিয়েছে, ‘সরাসরি বিরোধিতা’ জানাচ্ছি যেহেতু এই কাজ বেজিংয়ের ‘আঞ্চলিক সার্বভৌমত্ব এবং রাজনৈতিক পারস্পরিক বিশ্বাসকে নষ্ট করেছে’।

বর্তমানে অমিত শাহ অরুণাচলপ্রদেশের ৩৪তম স্টেটহুড ডে উপলক্ষে সেখানে উপস্থিত রয়েছেন। পাশাপাশি শিল্প এবং সড়ক ক্ষেত্রে একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন বলেও জানা গিয়েছে।

উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে চিন মাঝেমাঝেই ভারতের নেতাদের সফর নিয়ে হস্তক্ষেপ জানাচ্ছে। এতে স্পষ্ট যে চিন নিজের অধিকার এবং ক্ষমতা কায়েম রাখতেই এই সিদ্ধান্ত বারবার নেওয়া হয় বলেই মনে করা হচ্ছে।

চিনের বিদেশম্নত্রকের মুখপাত্র জেং শুয়াং সংবাদসংস্থার মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছে, “ভারত-চিন সীমানার পূর্ব অংশ নিয়ে অথবা চিনের তিব্বতের দক্ষিণাংশ নিয়ে চিনের অবস্থান পরিষ্কার”।