সিঙ্গাপুর: দক্ষিণ চিন সাগরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আমেরিকার বক্তব্যের সমালোচনা করল কমিউনিস্ট চিন৷  তবে তা নরমে-গরমে৷ সিঙ্গাপুরে আয়োজিত নিরাপত্তা সম্মেলনে চিনা অ্যাডমিরাল সান জিয়াংগুও জানিয়েছেন, দক্ষিণ চিন সাগরের বিষয়টি বেশি করে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে কিছু বাইরের দেশের উসকানিতে, যারা এর মাধ্যমে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি চায়৷ তবে এসবে চিন ভয় পাচ্ছে না বলে দাবি সানের৷ দক্ষিণ চিন সাগর নিয়ে টেনশন সৃষ্টির জন্য তিনি কাঠগড়ায় তোলেন আমেরিকার  ‘ঠান্ডাযুদ্ধের’ মানসিকতাকে৷৷

শনিবার দক্ষিণ চিন সাগরে কমিউনিস্ট চিনের তৎপরতা ও গতিবিধির সমালোচনা করেন মার্কিন নিরাপত্তা সচিব অ্যাশটন কার্টার৷ এমনকী, দক্ষিণ চিন সাগরে যে কৃত্রিম দ্বীপ চিন গড়ে তুলেছে তার নিন্দা করে প্রয়োজনে মার্কিন সামরিক হস্তক্ষেপের প্রচ্ছন্ন হুঁশিয়ারি দেন কার্টার৷ সেই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার প্রায় চ্যালেঞ্জের সুরে চিনা অ্যাডমিরাল সান জানিয়েছেন যে, চিন নিজে কোনও বিপদ ডেকে আনে না, কোনও বিপদকে পাত্তাও দেয় না৷ আবার এর পাশাপাশি, চিন যে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আগের মতো সুসম্পর্ক বজায় রেখেই চলতে চায়, মাও-চৌ এন লাইয়ের কায়দায় সে কথাও এদিন জানিয়ে দেন এই চিনা নৌ-সেনাপত৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ