নয়াদিল্লি: ভারতের ৭৪তম স্বাধীনতা দিবসে শুভেচ্ছা চিনের। এদেশে নিযুক্ত চিনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতকে। দু’দেশের মধ্যে শান্তির পরিবেশ বজায় রাখতে চেয়ে তাঁর বার্তা, ‘ভারত ও চিনের মধ্যে শান্তির পরিবেশ বজায় রাখতে উভয় পক্ষেরই সক্রিয় অংশগ্রহণ জরুরি।’

শনিবার স্বাধীনতা দিবসে টুইট করে ভারত সরকারকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশে নিযুক্ত চিনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং। তিনি লিখেছেন, ‘ভারত সরকার এবং সমস্ত ভারতবাসীকে স্বাধীনতা দিবসের অভিনন্দন জানাই। ভারত এবং চিন যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমেই দু’দেশের মধ্যে শান্তি এবং উন্নয়নের পরিবেশ বজায় থাকবে, এটাই প্রত্যাশা করি।’

লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে চিনা আগ্রাসনের পর থেকেই ভারত-চিন সম্পর্ক তলানিতে ঠেকে। চিনা হামলায় শহিদ হন ভারতের ২০ সেনা-জওয়ান। দেশজুড়ে চিনকে বয়কট করার ডাক জোরালো হতে শুরু করে। সেই তৎপরতা জারি রয়েছে আজও।

কেন্দ্রীয় সরকারও চিনের বিরুদ্ধে একের পর এক পদক্ষেপ করতে শুরু করে। ভারতের একাধিক নির্মাণ ও অন্যন্য ক্ষেত্রে চিনা সংস্থার সঙ্গে কাজের চুক্তি বাতিল করা হয়। চিনা দ্রব্যের প্রতি নির্ভরতা কমিয়ে দেশীয় পণ্য ব্যবহারে জোর দেওয়া শুরু হয়েছে।

লাদাখ উপত্যকায় শান্তির পরিবেশ বজায় রাখতে ভারত ও চিন দু’পক্ষই সামরিকস্তরে একাধিক বৈঠক করেছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে তৎপর ভারত। তবে চিনের দুরভীসন্ধির প্রমাণ বারবার মিলছে।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার উভয় দিকেই চিনা নির্মাণের ছবি ধরা পড়ছে স্যাটেলাইটে। তবে চিনকে মোক্ষম জবাব দিতে এবার সবরকমভাবে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে ভারতীয় সেনা।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও