নয়াদিল্লি-বেজিং:  ভারত সীমান্তে ক্রমশ সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে লালচিন। বিশেষ করে তিব্বত সংলগ্ন এলাকায় চিনের এই প্রচেষ্টা প্রায় নীরবে বাড়িয়ে চলছে। এক রিপোর্টে এমনটাই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। গত বছরখানেক আগে ডোকলামকে কেন্দ্র করে চিন-ভারতের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল।

কার্যত যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিল দু দেশের সেনা। কিন্তু দু’দেশের মধ্যে লাগাতার আলোচনার পরে সেই সমস্যা অনেকটাই কেটে যায়। কিন্তু সম্প্রতি ভারত সীমান্তে চিনের সামরিক উপস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগের হয়ে দাঁড়াচ্ছে ভারতের কাছে।

প্রকাশিত এক রিপোর্টে জানা গিয়েছে, ভারত সীমান্তের কাছাকাছি অবস্থিত তিব্বতের গোংগা বেসামরিক বিমান বন্দরের উন্নয়ন করছে চিনের সেনাবাহিনী। এ ছাড়া, ৩+১ প্রকল্পের আওতায় দক্ষিণাঞ্চলীয় তিব্বতের বুড়াং, লাহুনজি এবং তিনগিরিতে বিমান বন্দর নির্মাণের পরিকল্পনাও হাতে নিয়েছে চিন।

বেজিংয়েরর সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আর এই খাতে ২.৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করা হবে বলে দাবি করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, আগামী ২০২১ সালের মধ্যে এই নির্মাণ কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। অবশ্য, ভারতের নিরাপত্তা প্রশাসনের সঙ্গে জড়িত একটি সূত্র বলছে, তিব্বতের সর্বশেষ পরিস্থিতির বিষয়ে অবহিত আছে নয়াদিল্লি। দেশের সামরিক আধিকারিকরা পুরো বিষয়টি নজরে রাখছে বলে জানা গিয়েছে।