প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভুগছে গোটা পৃথিবী। এই আতঙ্ক সাধারণ মানুষের মধ্যেও প্রভাব বিস্তার করেছে। সম্প্রতি সামুদ্রিক মাছ ও মুরগির মাংস থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে রাজ্যে। ফলে সামুদ্রিক মাছ সহ মুরগির মাংস খাওয়ার প্রায় বন্ধ করেছে সাধারণ মানুষ। মুরগির মাংস খেলে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে এই গুজবের ফলে সাধারন মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। মুরগির মাংসের বিক্রি এক ধাক্কায় অনেকটাই কমে গিয়েছে। ফলে ক্ষতির মুখে পরছেন মুরগি’র মাংস বিক্রেতারা।

এই পরস্থিতি থেকে নিজেদের ব্যবসাকে বাঁচাতে মুরগির মাংসের সঙ্গে বিনামূল্যে ক্রেতাদের পেঁয়াজ দেওয়ার পন্থা অবলম্বন করলেন উত্তর ২৪ পরগনার মুরগির মাংস বিক্রেতা। বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগনার খরদা সুকচর বাজারে দীপ ধর নামে এক মাংস বিক্রেতা তার দোকানের মুরগির মাংস বিক্রি বাড়াতে ১ কেজি মাংসের সঙ্গে ২৫০ গ্রাম পেঁয়াজ বিনামূল্য দেওয়া শুরু করেছেন। বিনামুল্যে পেঁয়াজের জন্য দোকান চত্বরে দু একজন ক্রেতাকে মাংস কিনতে দেখা গেলেও করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক কাটিয়ে সেভাবে ক্রেতাদের দেখা নেই।

যেখানে প্রতিদিন এই দোকান থেকে প্রায় ১০০ কেজি’র উপরে মাংস বিক্রি হয় সেখানে বিক্রি প্রায় বন্ধের মুখে। এই ফলে চরম দুরবস্থায় মুখে পরছেন মুরগির মাংস ব্যবসায়ীরা। সুখচরের এই মাংস ব্যবসায়ীর বক্তব্য “আমরা তো মুরগির মাংস বিক্রি করে সংসার চালাই। কিন্তু মুরগির মাংস থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে এই গুজবে আমাদের ব্যবসা একদম শেষ হতে বসেছে।

তাই মাংস কিনলে বিনামূল্যে পেঁয়াজ দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। কিন্তু তাও মুরগির মাংস বিক্রি হচ্ছে না।”অপর দিকে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক কে উপেক্ষা করে যারা মাংস কিনছেন তাদের কথা “সোস্যাল মিডিয়া একটা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। মুরগি মাংস খেলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হতে হবে এটা ভুল আর সেটা প্রমাণ করতে আর সেই সঙ্গে বিনামূল্যে পেঁয়াজ নিতেই মুরগি র মাংস কিনতে এসেছি।”

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।