গরমের সময় কাঁচা আম কুড়িয়ে খাওয়া বা বানানো আচার, চাটনি লুকিয়ে লুকিয়ে খাওয়া সে এক আলাদাই ব্যাপার। সেই মজা যারা অনুভব করেছে তারাই বুঝতে পারবে। তবে যতই সময় এগিয়েছে ততই সেই দিনগুলি হারিয়ে গিয়েছে জীবন থেকে। কিন্তু এখনো গরমকালে আমপ্রেম না হলে চলে নাকি? অনেক তো খেয়েছেন সেই একধারার রেসিপি।

এবার ট্রাই করুন অন্য কিছু। একেবারে টক-ঝাল এফেক্ট দেবে এমন কিছু বানিয়ে ফেলতে চান? এই রেসিপিটি সত্যিই অবাক করবে। ইতিমধ্যেই শিরোনাম পড়েই অনেকে ক্লিক করেছেন সঙ্গে সঙ্গে। কেউ কেউ আবার নাক সিঁটকোচ্ছেন। কিন্তু একবার হলেও এই সহজ রেসিপিটি দেখুন ট্রাই করে। পরিবারের লোকেরা যেমন অবাক হবেন তেমন আপনিও পাবেন আলাদা প্রশংসা। এই রেসিপির নাম “কাঁচা আম দিয়ে মুরগি”।

উপকরণ: কাঁচা আম ২টি, মুরগির মাংস আধা কেজি, সয়াবিন তেল ৪ টেবিল চামচ, কাঁচা লঙ্কা বাটা ১ চা চামচ, আদা বাটা ২ চা চামচ, রসুন বাটা ২ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো আধা চা চামচ, পাঁচফোড়ন ১ চা চামচ, লবণ ২ চা চামচ, দারুচিনি ২টি, জিরা গুঁড়ো ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, এলাচ ৪টি।

আরো পোস্ট- খাওয়ার উপর কীভাবে প্রভাব ফেলে শরীরচর্চা…

কীভাবে রাঁধবেন: প্রথমে কাঁচা আমগুলি ভালো করে ধুয়ে নিয়ে তা গ্রেট করে নিন। এবার কড়াইয়ে তেল দিয়ে তেল গরম হলে পাঁচফোড়ন দিয়ে দিন। এরপর সব মশলা তাতে ঢেলে দিয়ে মাংস ঢেলে দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে সব। ভালোমতো কষানো হয়ে গেলে ঠিকমতো জল ঢেলে দিয়ে ঢেকে ঢেকে সিদ্ধ করুন মাংস।

এরপর শুরু হবে আসল টুইস্ট। গ্রেট করা আম ঢেলে দিয়ে আরো কিছুক্ষণ কষিয়ে নেবেন ঢেকে ঢেকে। এতে আমের সুদ মিশবে সেই মাংসের ঝোলের সঙ্গে। এবার আর বেশি দেরি করবেন না। ১০ মিনিট মতো সেটা ঢেকে রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম ভাত আর ডাল দিয়ে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.