নয়াদিল্লি : সারা দেশে যখন শুল্কের ঠেলায় বাড়ছে পেট্রোলের দাম। স্বস্তিতে চেন্নাইবাসী। সেখানে পেট্রোলের দাম কমল। তবে এতাও সত্যি, যে দাম কমেছে, তার পূর্বে বর্ধিত মূল্যের তুলনায় নস্যি। সেখানে দাম কমেছে সাকুল্যে এক পয়সা। একে স্বস্তি না অস্বস্তি তা বলা মুশকিল। মন্দের ভালো বলা যেতে পারে।

৩মে পর্যন্ত চেন্নাইয়ে পেট্রোলের দাম ছিল ৭২.২৮ টাকা। ৪ মে তা লাফিয়ে ৩.২৬ টাকা বেড়ে হয়ে যায় ৭৫.৫৪ টাকা। ৮ মে তা আরও এক পয়সা বেড়ে হয়ে যায় ৭৫.৫৫ টাকা। ৯ মে তা এক পয়সা কমে হয়েছে ৭৫.৫৪ টাকা। এদিকে দিল্লিতে পেট্রোলের দাম ৭১.২৬। কলকাতায় দাম ৭৩.৩০ টাকা। মুম্বইয়ে ৭৬.৩১ টাকা , বেঙ্গালুরুতে পেট্রোলের দাম ৭৩.৫৫ টাকা। কলকাতায় হত দেড় মাস পেট্রোলের দাম বাড়েনি, আবার কমেওনি। বাকি চার স্থানে বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। যেমন দিল্লি সরকার দুটি জ্বালানির উপরে স্থানীয় বিক্রয় কর বা মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) বাড়ানোর পরে প্রতি লিটারে প্রতি লিটারের দাম ১.৬৭ টাকা এবং ডিজেল ৭.১০ টাকা বেড়েছে। এই বৃদ্ধির জেরে দিল্লিতে পেট্রোলের দাম গিয়ে দাঁড়াল লিটার পিছু ৭১.২৬ টাকা, যা বর্তমান দাম।

প্রসঙ্গত , আন্তর্জাতিক বাজারে পেট্রোল, ডিজেলের দাম কমলেও তার সুবিধা পাবেন না ভারতের ক্রেতারা। কেন্দ্রীয় সরকার পেট্রোল‌ে তাই লিটার প্রতি অতিরিক্ত ১০ টাকা ও ডিজেলে লিটার প্রতি ১৩ টাকা করে অন্তঃশুল্ক বসিয়েছে। এছাড়াও ডিলারের কমিশন থেকে বিভিন্ন রাজ্য সরকারের বিভিন্ন হারে ভ্যালু অ্যাডেড ট্যাক্স চাপানো হয়। আর তার জেরেই এত দাম দিয়ে কিনতে হয় পেট্রোল ও ডিজেল।

শুক্রবার উত্তরাখণ্ড রাজ্য সরকার পেট্রোলে প্রতি লিটার ২টাকা করে বৃদ্ধি করে। ডিজেলে বাড়ানো হয় লিটার প্রতি এক টাকা। ফলে সেই রাজ্যে পেট্রোলের বর্তমান দাম ৭২.৫৫ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৭৪.৫৫ টাকা প্রতি লিটার, ডিজেলের দাম এক টাকা বেড়ে হয়েছে ৬৪.১৭ টাকা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ