নয়াদিল্লি: প্রিয়ম, যশস্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে গতকালই বার্তা পাঠিয়েছিলেন সিনিয়র দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে কোচ রবি শাস্ত্রী সহ আরও অনেকে। অনুর্ধ্ব-১৯ দলকে এক শুভেচ্ছাবার্তায় বিরাট জানিয়েছিলেন, আগামীকাল তোমাদের লড়াই দেখার জন্য আমরা সবাই টেলিভিশনের পর্দায় চোখ রাখব।

কথামতো নিউজিল্যান্ডে বসে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভাইদের লড়াই দেখতে টেলিভিশন সেটে চোখ দাদাদের। দুর্দান্ত সেই ছবি টুইট করা হল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অফিসিয়াল টুইটার পেজে। ছবি পোস্ট করে বিসিসিআই লিখল, ‘অনুর্ধ্ব-১৯ দলের জন্য সুদূর নিউজিল্যান্ড থেকে সমর্থন।’ ছবিতে দেখা যাচ্ছে কোহলি, জাদেজা, পন্ত, কুলদীপদের সঙ্গে টেলিভিশন সেটে নজর রেখেছেন হেড কোচ রবি শাস্ত্রীও।

উল্লেখ্য, ২০০৮ বিরাট কোহলির নেতৃত্বে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ট্রফি জিতেছিল ভারত। সেই দলে ছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। এদিন টিম হোটেলে যশস্বীদের লড়াই দেখতে দেখতে হয়তো ১২ বছর আগেরচ স্মৃতি বারবারই উঁকি দিচ্ছিল কোহলি-জাদেজার মনে। শুভেচ্ছাবার্তার পাশাপাশি এদিন সকালে ভাইদের বার্তা দিয়ে একটি টুইটও করেন বিরাট। সেখানে তিনি লেখেন, ‘ফাইনালের আগে অনুর্ধ্ব-১৯ দলের জন্য আমার অনেক শুভেচ্ছা। গোটা দেশ তোমাদের সঙ্গে রয়েছে। ট্রফি ঘরে নিয়ে এসো।’

শনিবার প্রিয়মদের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন কোহলিদের হেড স্যারও। রবি শাস্ত্রী ভারতীয় দলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‘ফাইনালের জন্য ছেলেদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। টুর্নামেন্টে এতদূর অবধি তোমারা যে পারফরম্যান্সটা করেছো সেটা দুর্দান্ত। আগামীকাল শেষবারের জন্য একই পারফরম্যান্সটা ধরে রাখো।’

মেগা ফাইনালের জন্য যশস্বী-বিষ্ণোইদের জন্য শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছেন রবীন্দ্র জাদেজা, শার্দুল ঠাকুরও। ‘ফাইনালের জন্য অনুর্ধ্ব-১৯ দলকে অভিনন্দন। ফাইনালের জন্য সেরাটা দাও। ট্রফিটা ঘরে নিয়ে এসো।’ ছোট ভাইদের প্রতি এক শুভেচ্ছাবার্তায় জানিয়েছেন জাদেজা। ‘ফাইনালে পৌঁছে আমাদের গর্বিত করেছো এবার ট্রফিটাও নিয়ে এসো।’ প্রিয়মদের এক শুভেচ্ছাবার্তায় জানিয়েছেন শার্দুল। অনুর্ধ্ব-১৯ দলকে শুভেচ্ছা জানানোর তালিকায় রয়েছেন ময়াঙ্ক আগরওয়াল, নভদীপ সাইনি, কেদার যাদবরাও।