বসিরহাট: টাকা ছড়িয়ে ভোট কেনার চেষ্টা করছে বিজেপি- ভোটের প্রচারে বেরিয়ে অনেকদিন ধরেই এই অভিয়োগ করছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তবে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ি থেকে টাকা উদ্ধারের পর তিনি কড়া পদক্ষেপ করছেন৷ শনিবার হাড়োয়ার জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী পুলিশকে নির্দেশ দেন, বাংলায় টাকার অনুপ্রবেশ আটকাতে প্রধানমন্ত্রীর গাড়িও তল্লাশি করতে হবে৷

গত বৃহস্পতিবার ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ি থেকে ১ লক্ষ ১৩ হাজার ৮৯৫ টাকা উদ্ধার হয়৷ শুক্রবারই নাম না করে একদা স্নহধন্যা ভারতীকে নিশানা করেন তিনি৷ অশোকনগরের সভা থেকে মমতা বলেন, প্রচার শেষ হলেই বিজেপি টাকা বিলোনো শুরু করছে৷ আমাদের রাত পাহাড়া দিতে হবে৷

এদিনও মমতার নিশানায় ভারতী ঘোষ ছিল৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ওইদিন তো একটা গাড়ি ধরা পড়েছিল৷ দুটো গাড়িতে টাকা আসছিল৷ আর একটা গাড়ি পালিয়েছে৷ আমি পুলিশকে বলে দিয়েছি, কাউকে বাদ দেবেন না৷ সবার গাড়ি ভালভাবে চেক করুন৷ প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী সবার গাড়ি চেক করুন৷ যে কোনওদিন আমার গাড়িও চেক করুন৷”

তিনি বলেন, গতকাল উত্তরপ্রদেশের ১০জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ বহিরাগতরা টাকা নিয়ে বাংলায় ঘুরছে৷ বাংলার ভোটে বহিরাগতরা কেন থাকবেন?

ভোটের মুখে কলকাতা ও বিধাননগরের সিপিকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করেন মমতা৷ তিনি বলেন, “আমি বুঝি না, কেন কলকাতা- বিধাননগরের পুলিশ কমিশনারকে সরানো হল? তা না হলে তো হাওড়া স্টেশন থেকে আর এয়ারপোর্ট থেকে বাক্স বাক্স টাকা রাজ্যে ঢোকানো যেত না৷”