স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: তৃণমূল প্রার্থীর দেওয়াল লিখন ও পার্টি অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগণার বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র৷ অভিযোগের তির বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে৷

প্রথম ঘটনাটি ঘটেছে ইছাপুর নবাবগঞ্জ এলাকায়৷ সেখানে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর করা হয়৷ পরের ঘটনাটি বারাকপুর পুরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীর দেওয়াল লিখনে কালি লেপে দেওয়া হয়৷ দুটি ঘটনায় অভিযোগের কাঠগড়ায় বিজেপি৷ যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এই ঘটনায় তারা যুক্ত নয়৷ এগুলি বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূলের অপপ্রচার ছাড়া কিছু না।

বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের ইছাপুর নবাবগঞ্জ বাজারপাড়া এলাকায় যুব তৃণমূল কংগ্রেসের কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। অভিযোগ, রবিবার গভীর রাতে তৃণমূলের ওই কার্যালয়ে ঢুকে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।

এমনকি স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের বন্দুক দিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগও ওঠে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতী দলের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় সোমবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা এক বিজেপি কর্মীকে অভিযুক্ত হিসেবে ধরে নোয়াপাড়া থানার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে বাবুল দত্ত নামে ওই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।

বারাকপুর পুরসভার পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদীর সমর্থনে লেখা দুটি দেওয়ালে কালি লাগানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। গোটা বিষয়টি

তৃণমূলের তরফ থেকে নির্বাচন কমিশন ও টিটাগড় থানায় জানিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং বলেন, ‘‘তৃণমূল দলটাই মিথ্যাবাদীদের দল। এরা প্রত্যেকদিন পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের দলের কার্যালয় ভাঙচুর করছে। উলটে আমাদের উপর দোষ দিচ্ছে। ওদের কথার কি উত্তর দেব আমি। ওরা মিথ্যা কথা বলছে।’’