লখনউ: একের পর এক শহরের নাম বদল নিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সমালোচনায় মুখ খুললেন তাঁরই মন্ত্রিসভার সদস্য৷ উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী ওম প্রকাশ রাজভর শনিবার যোগী আদিত্যনাথকে এই নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করেন৷ তাঁর অভিযোগ, আসল ইস্যু থেকে সবার নজর সরাতে এই সব রাজ্য সরকারের নাটক৷ যাতে দলিত ও পিছিয়ে থাকা মানুষের আওয়াজ কেউ শুনতে না পারে৷

রাজ্যের নাম বদলের হিড়িক নিয়ে বিরোধীদের সমালোচনা তো হজম করতে হচ্ছে যোগী আদিত্যনাথকে৷ সেই তালিকায় যুক্ত হল ওম প্রকাশ রাজভরের নাম৷ শনিবার এই নিয়ে নিজের অসন্তোষ আর চাপা রাখেননি৷ এদিন রাজভরের কাছে শহরের নাম বদল নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চান সাংবাদিকরা৷ জবাব দিতে এক মুহূর্ত দেরি করেননি তিনি৷ স্পষ্ট ভাষায় জানান, আগে যোগী আদিত্যনাথ দলের মুসলিম নেতাদের নাম বদলে দেখাক৷ দলের মধ্যে তিন জন হেভিওয়েট মুসলিম নেতা আছেন৷ প্রথমজন জাতীয় মুখপাত্র শাহনওয়াজ হুসেন৷ দ্বিতীয় জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি৷ তৃতীয়জন রাজ্যের মন্ত্রী মোহসিন রাজা৷ শহরের নাম বদলানোর আগে দল আগে এই তিন বিজেপি নেতার নাম অন্তত পরিবর্তন করে দেখাক৷

সুহেলদেব ভারতীয় সমাজ পার্টির সভাপতির গলায় মুঘল জমানা এবং মুসলিম শাসকদের সম্পর্কে একগুচ্ছ প্রশংসা শোনা গিয়েছে৷ তাঁর বক্তব্য, ভারত শাসনের সময় মুসলিম শাসকরা বা মুঘলরা যে শিল্পকলার ছাপ রেখে দিয়ে গিয়েছে তেমন ছাপ অন্য কেউ রেখে যায়নি৷ নিজের বক্তব্যের সমর্থনে যুক্তি খাড়া করে বলেন, ‘‘জি টি রোড কে বানিয়েছে? লাল কেল্লা কাদের আমলে তৈরি? তাজমহল কে বানিয়েছে?’’ রাজভরের দাবি, আসলে যোগী সরকার আসল সমস্যা থেকে সবার নজর ঘোরাতে এই সব নাম বদলের নাটক করছে৷

এদিকে বিরোধী ও দলের নেতাদের একাংশের সমালোচনার পরেও রাজ্যে নাম বদল জারি রাখবেন বলে এদিন ইঙ্গিত দেন যোগী আদিত্যনাথ৷ জানান, সরকারের যেটা ভালো মনে হয়েছে তাই করেছে৷ যেখানে দরকার হবে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে৷