বেঙ্গালুরু: কিছুদিন আগেই চন্দ্রায়ন-২ এর অভিযান ব্যর্থ হয়েছে। সফট ল্যান্ডিং করেনি ল্যান্ডার বিক্রম। তবে এখানেই ভারতের অভিযান শেষ নয়। একথা জানিয়ে দিলেন ইসরো চিফ কে শিবান। দিল্লি আইআইটির সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এমন বলেছেন তিনি।

আইআইটির অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কে শিবান বলেন,’চন্দ্রযান ২ গল্পের শেষ নয়। আমাদের উদ্দেশ্য আদিত্য এল ওয়ান সোলার মিশন। রয়েছে মহাকাশে ভারতের স্পেসফ্লাইট পাঠানোর পরিকল্পনাও। আসন্ন মাসগুলিতে অ্যাডভান্সড স্যাটেলাইট লঞ্চ নিয়ে অনেক ক’টি পরিকল্প না রয়েছে।’

তিনি আরও জানিয়েছেন আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই আসতে চলেছে এসএসএলভি। প্রথম এসএসএলভি ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারির মধ্যেই উত্‍ক্ষেপণ করা হবে। এছাড়াও ২০০ টন সেমি ক্রায়ো এঞ্জিন এর টেস্টিং শুরু করবে ভারতের এই মহাকাশ গবেষণা সংস্থা।

মোবাইলে যাতে সামাবিজর পরিষেবার বিশিষ্ট অ্যাপের সংখ্যা বাড়ানো যায়, তার জন্য NAVIC সিগন্যাল নিয়ে গবেষণাও করতে চলেছে ইসরো। ফলে সবমিলিয়ে আগামিদিনে ইসরো-র তরফে ভারতের একাধিক রাস্তায় উন্নয়নের হাতছানি রয়েছে।

এদিন আইআইটি দিল্লি ও ,আইআইএসসি বেঙ্গালুরুর সঙ্গে ইসরো একটি মহাকাশ বিজ্ঞান বিষয়ে চুক্তিবদ্ধ হয়। এই চুক্তিতে একটি ‘স্পেস টেকনোলজি সেল’ গঠনের কথা বলা হয়েছে। এই সেলের আওতায় থাকছে আইআইটি বম্বেও।