স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: নরেন্দ্র মোদী দেশের জন্য কিছুই করেননি। দেশের মানুষ মোদীর ভাঁওতাবাজি বুঝে গিয়েছে। মানুষকে শুধুই মিথ্যে প্রতিশ্রুতি ছাড়াই আর কিছুই দেয়নি। এভাবে কড়া ভাষাতে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করলেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এম চন্দ্রবাবু নাইডু৷

১২ মে অর্থাৎ ষষ্ট দফায় পূর্ব মেদিনীপুরে লোকসভা নির্বাচন৷ তার আগে তমলুক লোকসভা কেন্দ্রর তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারীর সমর্থনে নির্বাচনী সভায় যোগদান করেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এম চন্দ্রবাবু নাইডু৷

তিনি বলেন, ‘‘বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। আর নরেন্দ্র মোদী দেশে গত পাঁচ বছরে কি উন্নয়ন করেছে তার হিসেব এখনও দিতে পারেনি। নরেন্দ্র মোদী দেশে নোটবন্দি, জিএসটি-সহ বহু সংস্কার এনেছেন। তার মধ্যে হাজার টাকা নোট বাতিল করে দু’হাজার টাকা চালু করেছেন। নোটবন্দি করে কারোর লাভ হয়নি। শুধু বিজেপির তহবিলে অর্থ গচ্ছিত হয়েছে। দেশে এখনও কালো টাকা উদ্ধার করতে পারেনি মোদী।’’

আরও পড়ুন : যুদ্ধজাহাজ আইএনএস বিরাটে ছুটি কাটিয়েছিল গান্ধী পরিবার : মোদী

তিনি আরও বলেন, ‘‘ভারতবর্ষের রাজনীতি, নির্বাচনকে দুর্নীতি করেছে মোদী। বিগত নির্বাচনে টাকা ছড়িয়ে বিজেপি উত্তরপ্রদেশে জিতেছে। আর এখনও নির্বাচনে মোদী টাকা ছড়াচ্ছেন। মোদীজীর এক-একটা পোশাকের জন্য দশ-কুড়ি লক্ষ টাকা খরচ হয়। আর দিদি হ্যান্ডলুমের সুতির শাড়ি পরেন। এটাই দিদি’র সঙ্গে মোদী’র পার্থক্য।’’

তাঁর কথায়, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে মোদীকে প্রশ্ন করলে উনি চিটফাণ্ড নিয়ে বলেন। তিনি নিজেকে একমাত্র সৎ রাজনীতিবিদ বলে মনে করেন। আর ভারতের সব রাজনীতিবিদ হল দুর্ণীতিগ্রস্থ বলে মোদী মনে করেন। তবে আমি বলতে চাই মোদীর থেকে আমরা বেশি দেশ ভক্ত। মোদীর সময়ে সমস্ত দেশের ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷

এদিন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জোটের প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘আগামী ১৯ মে লোকসভা ভোট শেষ হওয়ার পরে আমরা একত্রিত হয়ে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব। শিল্পাঞ্চল হলদিয়ার জন্য মোদী কিছুই করেননি। দেশে একটিও নতুন শিল্প আসেনি। কৃষির অবস্থাও শোচনীয়। আমরা একসঙ্গে বসে আমাদের ‘কমন মিনিমাম প্রোগ্রাম’ গ্রহণ করব। ভোট পরবর্তীকালে আমরা সিদ্ধান্ত নেব যে আমাদের ইউনাইটেড ফোরামের পক্ষ থেকে কে প্রধানমন্ত্রী হবেন? তবে এবার নরেন্দ্র মোদী ভারতবর্ষের আর প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না।’’