শ্রীনগর: আতঙ্কের পরিবেশ আর নেই৷ খোলা হাওয়ায় মুক্ত মনে ঘুরতে পারবেন কাশ্মীরে৷ তাই পর্যটকরা আসুন৷ নির্ভয়ে ঘুরুন ভূস্বর্গ৷ এমনই আশ্বাসবাণী দিচ্ছে জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন৷ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রে পক্ষ থেকে তুলে নেওয়া হল নিষেধাজ্ঞা৷ আর তারপরেই পর্যটক, পুণ্যার্থীদের জন্য বিশেষ বার্তা দিল কাশ্মীর প্রশাসন৷

বৃহস্পতিবার কাশ্মীর থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা৷ জানানো হয়েছে উপত্যকায় অক্সিজেন ফেরাতে এই স্থিতাবস্থা থাকবে৷ ৫ই অগাষ্ট কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়৷ তুলে দেওয়া হয় কাশ্মীরের স্পেশাল স্ট্যাটাস৷ তারপর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি৷

প্রায় দুই মাস আগে পর্যটকদের জন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। অবশেষে রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের হস্তক্ষেপে স্বাভাবিক হতে চলেছে ভূস্বর্গ। সোমবার রাজ্যপাল পর্যটকদের উপর থেকে দ্রুত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেন। জম্মু কাশ্মীরের তথ্য দফতরের পক্ষ থেকে ট্যুইট করে জানানো হয়, সত্যপাল মালিক এদিন নিরাপত্তা নিয়ে রিভিউ মিটিং করেন মুখ্যসচিব ও পরামর্শদাতার সঙ্গে। স্বরাষ্ট্র দফতরকে দেওয়া রাজ্যপালের নির্দেশিকায় বলা হয়, রাজ্য থেকে পর্যটকদের বেরিয়ে যেতে বলার আদেশ তুলে নেওয়া হচ্ছে ১০ অক্টোবর থেকে।

এর আগে, আমেরিকা ভারত সরকারকে কাশ্মীরের উপর থেকে সমস্ত বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার আবেদন জানায়৷ পাশাপাশি যারা দীর্ঘদিন থেকে আটক হয়ে রয়েছেন তাঁদেরও ছেড়ে দেওয়ার আর্জিও জানানো হয়।
সংবাদসংস্থা এএফপির সূত্র অনুযায়ী, দক্ষিণ এশিয়ার দফতরের আধিকারিক অ্যাালাইস ওয়েলসের বক্তব্য ছিল, “কাশ্মীর থেকে বিধিনিষেধ তুলে দেওয়া এবং আটকদের ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে আমরা দ্রুত পদক্ষেপের অপেক্ষায় আছি।”

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

Tree-bute: রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও