ফাইল ছবি

শ্রীনগর: ১৫ অগস্ট স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে জম্মু-কাশ্মীরের নিরাপত্তা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ উপত্যকায় ফের অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে৷ রয়েছে বায়ুসেনার সি-১৭ বিমানও৷ যে কোনও ধরণের হামলাকে প্রতিহত করতে সেনাবাহিনী কড়া প্রহরায় মুড়ে ফেলেছে উপত্যকাকে৷

তবে শুক্রবার, দিনের শুরুতেই জঙ্গিদের উপস্থিতির খবর পেয়ে তল্লাশি অভিযানে নামে সেনাবাহিনী৷ জঙ্গিরা গুলি ছুঁড়লে পাল্টা দেয় সেনা৷ সেনার 34RR, এসওজি এবং সিআরপিএফ গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে এবং পান্দুশানে তল্লাশি শুরু করে৷ মনে করা হচ্ছে, সেনার জালে ৩ জঙ্গি আটকে পড়েছে৷ তবে এখনও গুলির লড়াই চলছে বলে জানা গিয়েছে৷ এক সেনা শহিদও হয়েছেন৷

আরও পড়ুন : কাশ্মীরে ঢুকে পড়েছে ৫ জইশ জঙ্গি, বড়সড় হামলার সতর্কতা জারি

তবে জানা গিয়েছে, ১০ হাজার সেনা পাঠানোর কিছুদিনের মধ্যে ফের কাশ্মীরে অতিরিক্ত ২৮হাজার সেনা পাঠাল কেন্দ্র৷ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে জানা গিয়েছে, কাশ্মীর উপত্যকায় ২৮০ কোম্পানির সিকিওরিটি ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে৷ এই নিরাপত্তা আধিকারিকরা বেশিরভাগই সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের৷ তাদের কাশ্মীরের বিভিন্ন প্রান্ত এবং শ্রীনগরে মোতায়েন করা হয়েছে৷

প্রসঙ্গত, এক সপ্তাহ আগেই জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের কাশ্মীর সফরের পরই সেখানে ১০ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে৷ ইতিমধ্যে বহু জওয়ানকে সেখানে পাঠিয়েও দেওয়া হয়৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের জারি করা আদেশে বলা হয়েছে কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী নেটওয়ার্ক ধ্বংস করার অভিযান আরও মজবুত করতে অতিরিক্ত সেনার মোতায়েন প্রয়োজন৷ সেই সঙ্গে রাজ্যে আইন শৃঙ্খলাও আরও মজবুত হবে৷