নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর ৷ সম্প্রতি তাদের অবসরের বয়স কমানোর নিয়ে যে খবর ছড়িয়েছিল তা ঠিক নয়৷ কেন্দ্র জানিয়েছে ,সরকারি কর্মচারীদের অবসরের বয়স কমানোর আদৌ কোনও রকম পরিকল্পনা নেই ৷

খবর রটেছিল, সরকারি কর্মীদের অবসরের বয়স সীমা নিয়ে নাকি কেন্দ্র নতুন করে ভাবনাচিন্তা করছে৷ সেক্ষেত্রে সরকারি কর্মীদের চাকরির মেয়াদও বেঁধে দিতে চাইছে সরকার। শুধু তাই নয় কর্মী ও প্রশিক্ষণ বিভাগের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই এমন একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে সরকারের ব্যয় বিভাগের কাছে। কিন্তু খবরটি আদৌ ঠিক নয় সে নিয়ে এবার ব্যাখ্যা দিন কেন্দ্রীয় সরকার৷

ওই ভুয়ো খবরটি ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়াতে৷ তা দেখতে পেয়ে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হল, ‌অবসরের বয়স সেই ৬০ বছরই থাকছে। কোনও রকম প্রস্তাব আসেনি অবসরের মেয়াদ বেঁধে দেওয়ার৷ পুরো বিষয়টি গুজব বলেই চিহ্নিত করা হয়েছে৷‌

ওই ভুয়ো খবরে বলা হয়েছিল, সরকার নাকি প্রস্তাবে দিয়েছে বয়স ৬০ কিংবা ৩৩ বছর চাকরির মেয়াদ সম্পূর্ণ হলেই কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মীকে অবসর নিতে হবে । অর্থাৎ যদি ৬০ বছর পূর্ণ করার আগে কোনও কর্মীর ৩৩ বছর চাকরির মেয়াদ সম্পূর্ণ হয়ে যায় , তাহলে তখন তাঁকে অবসর নিতেই হবে। অন্যদিকে আবার ৬০ বছরের বেশি চাকরি কখনই করা যাবে না তা সে চাকরির মেয়াদ ৩৩ বছর হোক কিংবা না হোক।

বর্তমানে বেশিরভাগ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীর অবসরের বয়স হল ৬০ বছর।১৯৯৮ সালে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের অবসরের বয়স৫৮ থেকে বাড়িয়ে ৬০ করা হয়েছিল। ওই ভুয়ো খবরে তা ফের কমানোর ইঙ্গিত ছিল ৷ তবে কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কেন্দ্রীয় চিকিৎসকদের ক্ষেত্রে ৬৫ বছর হল অবসরের বয়স ।