নয়াদিল্লি: যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে মোদীর মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য এম জে আকবরের বিরুদ্ধে৷ বর্ষীয়ান এই সাংবাদিক এখন বিদেশ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলাচ্ছেন৷ সেই সূত্রেই তিনি নাইজেরিয়া সফরে গিয়েছেন৷

নয়াদিল্লির একটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, এমজে আকবরকে দেশে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারি তরফে৷ সেই মতো তিনি আজ, বৃহস্পতিবারের মধ্যেই দেশে ফিরতে পারেন৷ যদিও তাঁর ফেরার নির্ধারিত দিন আগামিকাল, শুক্রবার৷

আরও পড়ুন: কেষ্টর ঘাঁটিতে পুজো উদ্বোধনে হট ফেভারিট মুসলিম কং বিধায়ক

ভারতে এই মুহূর্তে সবচেয়ে আলোচিত ও আলোড়িত বিষয় হল #MeToo. বলিউড থেকে সংবাদমাধ্যম বিভিন্ন ক্ষেত্রের মহিলারা সামিল হয়েছেন এই ক্যাম্পেনে৷ প্রত্যেকেই বলছেন নিজেদের সঙ্গে ঘটা যৌন হেনস্তার ঘটনা৷

সোমবার সন্ধ্যায় বেশ কয়েকজন সাংবাদিক ট্যুইটারের মাধ্যমে এমজে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তোলেন৷ তার পর সময় যত এগিয়েছে, ততই বিষয়টি রাজনৈতিক হয়ে গিয়েছে৷ কংগ্রেস এই ইস্যুতে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগতে শুরু করেছে৷

আরও পড়ুন: স্বামীহারা বধূর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে উঠছে হাজারো প্রশ্ন

নয়াদিল্লির একটি সরকারি সূত্রের দাবি, কেন্দ্রীয় সরকার বিষয়টির উপর নজর রাখছে৷ সেই কারণেই দেশে ফিরতে বলা হয়েছে এমজে আকবরকে৷ তাঁর কাছ থেকে এ বিষয়ে কৈফিয়ত চাওয়া হতে পারে৷ প্রয়োজনে তাঁকে পদত্যাগও করতে বলা হতে পারে৷

রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ৷ তাই এই বিষয়ে সরকারি তরফে কেউ কোনও ঝুঁকি নিতে নারাজ৷ তার উপর সামনেই পাঁচ রাজ্যে ভোট৷ কয়েক মাসের মধ্যে লোকসভার নির্বাচন৷ তাই তার আগে এ বিষয়ে সাবধানে পা ফেলতে চাইছে বিজেপি৷

আরও পড়ুন: #Metoo: এবার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।