নয়াদিল্লি : সেন্ট্রাল রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট সেলের তরফ থেকে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে। জানানো হয়েছে একাধিক শূণ্য পদে নিয়োগ করা হবে। ২৫৩২টি খালি পদ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। আগ্রহী প্রার্থীদের ২০২১ সালের ৫ই মার্চ বিকেল পাঁচটার মধ্যে আবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। ৬ই ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে আবেদনপত্র জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া।

সেন্ট্রাল রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট সেলের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট rrccr.com মিলবে বিস্তারিত তথ্য। কর্মী নিয়োগ করা হবে মুম্বই, পুনে, নাগপুর, শোলাপুর ও ভুসওয়ালে। ক্যারেজ ও ওয়াগন, পার্সেল ওয়ার্কশপ, মুম্বই কল্যাণ ডিজেল শেড, মানমড় ওয়ার্কশপে খালি রয়েছে একাধিক পদ।

খালি পদের বিস্তারিত তথ্য :

মুম্বই

Carriage & Wagon (Coaching) Wadi Bunder – 258 Posts
Mumbai Kalyan Diesel Shed – 53 Posts
Kurla Diesel Shed – 60 Posts
Sr.DEE (TRS) Kalyan – 179 Posts
Sr.DEE (TRS) Kurla – 192 Posts
Parel Workshop – 418 Posts
Matunga Workshop – 547 Posts
S&T Workshop, Byculla – 60 Posts

ভুসওয়াল

Carriage and Wagon Depot – ১২২ পদ
Electric Loco Shed, Bhusawal – ৮০টি পদ
Electric Locomotive Workshop – ১১৮টি পদ
Manmad Workshop – ৫১টি পদ
TMW Nasik Road – ৪৯টি পদ
Carriage & Wagon Depot – ৩১টি পদ
Diesel Loco Shed – ১২১টি পদ

নাগপুর

Electric Loco Shed – ৪৮টি পদ
Ajni Carriage & Wagon Depot – ৬৬টি পদ

সোলাপুর

Carriage & Wagon Depot – ৫৮টি পদ
Kurduwadi Workshop – ২১টি পদ

শিক্ষাগত যোগ্যতা

দশম শ্রেণী পাশ করলেই মিলতে পারে এই চাকরি। যে কোনও অনুমোদিত বোর্ড থেকে পাশ করতে হবে প্রার্থীদের। থাকতে হবে নূন্যতম ৫০ শতাংশ নম্বর।

বয়স : প্রার্থীদের বয়স হতে হবে ১৫ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে।

কীভাবে আবেদন করবে

ছয়ই ফেব্রুয়ারি থেকে পাঁচই মার্চের মধ্যে আবেদন করতে হবে আবেদন পৌঁছতে হবে বিকেল পাঁচটার মধ্যে। সেন্ট্রাল রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ড জানিয়েছে অনলাইনে আবেদন করা যাবে।

আবেদনের জন্য প্রয়োজন ১০০ টাকা। মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.