স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে হারের মুখোমুখি হওয়ার পর তৃণমূলের ‘কাটমানি’ ফেরত দেওয়ার কথা মনে হয়েছে। এটা নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার ফল বলে মনে করেন কেন্দ্রীয় মহিলা, শিশুবিকাশ এবং বস্ত্রমন্ত্রী স্মৃতি জুবিন ইরানি। গেরুয়া রাজনীতিতে স্মৃতি একজন বলিষ্ঠ কণ্ঠ।

মঙ্গলবার কলকাতায় সাংবাদিক সম্মেলন করতে এসে তিনি আরও বলেন, কাটমানি ফেরত দেওয়ার মাধ্যমে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার স্বীকার করে নিয়েছে যে তারা দুর্নীতিগ্রস্ত। স্মৃতি বলেন, এক মহিলা কাটমানি ফেরত চেয়েছিলেন। তাঁকে মারধর এবং শ্লীলতাহানি করা হয়। পশ্চিমবঙ্গে মানুষ পরিবর্তন চাইছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার বিভিন্ন কেন্দ্রীয় প্রকল্প রাজ্যে রূপায়ণে অনীহা দেখিয়েছেন।

সেই প্রসঙ্গে স্মৃতি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একরোখা অবস্থান নিয়েছেন। রাজ্য সরকার কেন্দ্রের বিরূদ্ধে যাবেই, এই অবস্থান নেওয়ার ফলে রাজ্যবাসীর, মহিলা, শিশুদের ক্ষতি হচ্ছে। চাষীদেরও ক্ষতি হচ্ছে। লোকসভা নির্বাচনের ব্যাপক পরাজয়ের মুখ দেখেছে তৃণমূল। মানুষ পরিবর্তন চায়। পশ্চিমবঙ্গে এন আর সি চালু করা নিয়ে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন স্মৃতি।

তিনি বলেছেন, বিজেপি একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে ভারতের প্রত্যেক নাগরিককে রক্ষা করবে। সেক্ষেত্রে বেআইনি অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে সংবিধান অনুযায়ী সরকার ব্যবস্থা নেবে।