নয়াদিল্লি: কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলির জিএসটি ঘাটতি ক্ষতিপূরণের উদ্দেশ্যে ১.১ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ নিতে রাজি হয়েছে। যা দেখে কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম বলেন, ‘‘এই প্রথম কেন্দ্র সঠিক পদক্ষেপ নিল। কারণ, কেন্দ্রের এখনই উচিত এমন কাজ করা যাতে রাজ্যগুলির আস্থা গড়ে ওঠে।’’

টুইটে তিনি আরও লিখেছেন, ‘‘হৃদয়ের দিক থেকে এই পরিবর্তনকে স্বাগত জানাচ্ছি।’’ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর আরও দাবি, ‘‘কেন্দ্র যেন ব্যাখ্যা করে কীভাবে এই ঋণ রাজ্যগুলিকে দেওয়া হবে এবং কীভাবে তা পরিশোধ করা হবে।’’

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, বর্তমান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন রাজ্যগুলিকে লিখিতভাবে জানিয়েছে কেন্দ্র ১,১০,২০৮ কোটি টাকা ঋণ নেবে এবং দেবে রাজ্যগুলিকে।

তবে এই বিষয়ে কোন ব্যাখ্যা নেই জিএসটি ক্ষতিপূরণের ঘাটতির ফারাক। তাছাড়া কে এই ঋণ নেবে এবং কেমন করে ঋণ দেওয়া হবে এবং পরিশোধ করা হবে এই বিষয়ে কোন ব্যাখ্যা দেওয়া নেই বলে তিনি জানিয়েছেন।

রাজ্যগুলি নিজেরা ক্ষতিপূরণের জন্য ঋণ নেওয়ার বিরোধী ছিল। সে দিক থেকে রাজ্যগুলি ঠিক বলেই তিনি মনে করেন আর সেক্ষেত্রে প্রথম পরিমাণ এবং দ্বিতীয় পরিমাণের মধ্যে কোন ফারাক থাকবে না। কেন্দ্র অবিলম্বে অচলাবস্থা দূর করুক একই ভাবে ১০৬৮৩০ কোটি টাকা এখন যেমন অফার করা হচ্ছে ১১০২০৮ কোটি টাকা।

বেশ কিছুদিন ধরে জিএসটি ক্ষতিপূরণ নিয়ে বিরোধী শাসিত রাজ্যগুলির কাছ থেকে চাপ আসছিল কেন্দ্রের উপর। এমন পরিস্থিতিতে নিজেদের অবস্থান কিছুটা বদলে বৃহস্পতিবার ঘোষণা করে মোদী সরকার।

পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে কেন্দ্র প্রায় ১.১ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ নেবে। আর ওই অর্থ থেকেই জিএসটি ঘাটতি মেটাতে রাজ্যগুলিকে ঋণ দেবে।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।