স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শত্রু বিনাশ করতে কোমরে তলোয়ার লুকিয়ে রাখুন৷ নাম না করে এভাবেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে হুংকার ছাড়লেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া টলিউড অভিনেত্রী কাঞ্চনা মৈত্র। এই মন্তব্যকে ঘিরে চরম বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷ কাঞ্চনার এই মন্তব্যের প্রতিবাদে সরব হয়েছে তৃণমূলও।

বরানগরে জগদ্ধাত্রী পুজোর অনুষ্ঠানে গিয়ে তলোয়ার উপহার পান কাঞ্চনা৷ সেই উপহার গ্রহণের পরই তিনি বলেন, ‘‘যে মূর্খের দল বলে, তলোয়ার মানে অশান্তি, সন্ত্রাস। সেই মূর্খের দলকে বলব, আবার ক্লাস সেভেন-এইটের ইতিহাস বইটা ধরে দেখুন, আমাদের দেশের বীররা তলোয়ার হাতে দেশের শত্রুদের কীভাবে বিনাশ করেছেন। আপনাদের কাছে একটাই আবেদন, মনে জোর রাখবেন, আর কোমরে একটা লুকোনো তলোয়ার রাখবেন। যে তলোয়ার দিয়ে আপনাদের সম্মুখে শত্রুদের, যারা আমাদের দেশে, রাজ্যে, এলাকায় বিশৃঙ্খলা করতে চায়, তাদের সমূলে বিনাশ করবেন। কারণ, আপনারা প্রত্যেকে ছত্রপতি শিবাজী আর মহিলারা প্রত্যেকে ঝাঁসির রানি’’।

কাঞ্চনা যখন এই হুঁংকার দিচ্ছেন, তখন তাঁর পাশেই বসে ছিলেন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় ও মানস ভট্টাচার্য। তাঁদের হাতেও এদিন তলোয়ার উপহার তুলে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, এর আগেও অস্ত্র বিতর্কে জড়িয়েছেন বিজেপি নেতারা। রামনবমীর শোভাযাত্রায় খড়গপুরে গদা, তলোয়ার হাতে দেখা গিয়েছিল বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। অস্ত্রহাতে মিছিলের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বলতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ‘‘দুষ্কৃতীদের হাত থেকে রক্ষার জন্য অস্ত্র তুলে নিয়েছি’’।

কাঞ্চনার মন্তব্য প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা তথা বিধানসভায় পরিষদীয় প্রতিমন্ত্রী তাপস রায় বলেন, ‘‘মনুষ্য সমাজে অস্ত্রের আস্ফালন হওয়ার তো কথা নয়। যাঁরা অস্ত্র নিয়ে দাপাদাপি করছেন, তাঁরা অস্ত্রের আস্ফালন দেখিয়ে ভারতীয় সভ্যতার ঐতিহ্য, পরম্পরা বন্ধ করতে পারবেন না’’।