আগরতলা: রোজভ্যালি কাণ্ডে তৃণমূল সাংসদ তাপস পালকে গ্রেফতার করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। এবার সেই তদন্তকারী সংস্থার নজরে দেশের গরীব মুখ্যমন্ত্রী সিপিএমের মানিক সরকার। এমনই মনে করছেন ত্রিপুরার এক রাজনৈতিক বিশ্লেষক। তাঁর সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে সর্বভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকায়।

নোট বাতিল নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার রাজনীতির অভিযোগ এনেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। কেন্দ্রের নোট বাতিলের পর মোদী সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছিল বিরোধীরা। সেই তালিকায় প্রথমের সারিতে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস। কেন্দ্রের বিরোধীতায় সামিল ছিল বামেরাও। সেই কারণেই কী সিবিআই নজরে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার? ব্যাখ্যা করেছেন তাঁর রাজ্যেরই এক রাজনৈতিক বিশ্লেষক। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুসারে, রোজভ্যালির কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছিল পূর্ব ভারত থেকেই। ত্রিপুরাতেও এই সংস্থার অনেক প্রজেক্ট ছিল এবং ত্রিপুরা থেকে প্রচুর টাকা তুলেছে রোজভ্যালি। মূলত সেই কারণেই মানিকবাবুকে ডাকতে পারে সিবিআই। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর পদে রয়েছেন।

পশ্চিমবঙ্গে বাম সরকারের আমলে এই সমস্ত অর্থলগ্নি সংস্থা গজালেও সেগুলির রমরমা হয় তৃণমূলের আমলে। সেই কারণে এই কেলেঙ্কারির জন্য একে অপরকে দোষারোপ করতে থাকে। কিন্তু, ত্রিপুরাতে দীর্ঘদিন ধরে সরকারে রয়েছে সিপিএম। তাই ওই রাজ্যে রোজভ্যালি আর্থিক কেলেঙ্কারির জন্য সরকার কখনই দায় এড়িয়ে যেতে পারে না।