ছবির সত্যতা যাচাই করেনি kolkata24x7.com

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ১৩ জনকে নোটিশ পাঠাতে চলেছে সিবিআই৷ ওই নোটিশের খসড়াও মঙ্গলবার তৈরি করে ফেলেছে কেন্দ্রীয় এই তদন্ত সংস্থা৷ তবে, এই ১৩ জনের মধ্যে কাকে আগে তলব করবে সিবিআই, সেই বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি৷

এ দিকে, নারদকাণ্ডের তদন্তের জন্য এ দিনই বিশেষ দল গঠন করেছে সিবিআই৷ এই দলের নেতৃত্ব দেবেন কলকাতার এক অধিকর্তা৷ আর, তদন্ত করবেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মর্যাদার এক আধিকারিক৷ গতকাল, সোমবার নারদকাণ্ডে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ, মন্ত্রী, বিধায়ক মিলিয়ে ১২ জন এবং পুলিশের এক আধিকারিকের নামে দিল্লিতে এফআইআর দায়ের করেছে সিবিআই৷ পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে মঙ্গলবার দিনভর কলকাতায় নিজাম প্যালেসে দফায় দফায় বৈঠকে বসেন সিবিআইয়ের আধিকারিকরা৷ সূত্রের খবর, ওই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হয়েছে, চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে ওই ১৩ জন ‘নারদ’কে নোটিশ পাঠাচ্ছে সিবিআই৷

তবে, এফআইআর অনুযায়ী অভিযুক্তদের নামের তালিকা ধরে তলব করা হবে, না কি, এই ১৩ জনকে তলবের জন্য পৃথক কোনও তালিকা তৈরি করা হবে, সেই বিষয়ে এ দিন কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানা গিয়েছে৷ এ দিনের ওই সব দফার বৈঠকে কলকাতার আধিকারিকরা কথা বলেন দিল্লির সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গে৷ সূত্রের খবর, এফআইআরে নাম থাকা এই ১৩ জনের বাইরেও নারদকাণ্ডে পৃথক ১৫ জনের একটি তালিকা এ দিন তৈরি করেছে সিবিআই৷ নারদ নিউজের ‘এক্স ফাইলস’-এ ছবি দেখা যায়নি অথচ, কণ্ঠস্বর শোনা গিয়েছে এবং যে সব নাম এসেছে অভিযুক্তদের কথায়, ১৫ জনের তালিকায় তাঁদের রাখা হয়েছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।