স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার এর উপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেওয়ার পর কেটে গিয়েছে ১০ দিন। কিন্তু এখনও তার খোঁজ পায়নি সিবিআই। এই নিয়ে বিভিন্ন মহলের মানুষের মনে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন।

অন্যান্য দিনের মতো রবিবারও সিবিআইয়ের বেশ কয়েকটি টিম কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি করছে । প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার তথা এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারের সরকারি বাসভবন পার্ক স্ট্রিট , আলিপুর ও লেকটাউনে হানা দেয় সিবিআই। কিন্তু কোথাও রাজীব কুমারকে তারা খোঁজে পায়নি।

এদিনও রাজ্যের গোয়েন্দা প্রধান রাজীব কুমারের স্ত্রী সঞ্চিতা কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার একটি টিম পৌঁছে যায় পার্ক স্ট্রিটে রাজীবের সরকারি বাসভবনে। বর্তমানে সেখানেই রয়েছেন রাজীব কুমারের স্ত্রী সঞ্চিতা কুমার। এর আগেও সিবিআইয়ের একটি টিম রাজীবের খোঁজ পেতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল।

গতকাল অর্থাৎ শনিবার ফের খারিজ হয়ে যায় রাজীব কুমারের জামিনের আর্জি। আলিপুর আদালতে বড় ধাক্কা খেলেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। ফলে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে আর কোনও বাঁধা থাকল না সিবিআইয়ের , এমনটাই বলছে আইনজীবীমহলের একাংশ।

গত ১০ দিন ধরে কোনও খোঁজ নেই রাজীব কুমারের। অলক্ষ্যে থেকেই গতকাল শনিবার আলিপুর জেলা বিচারকের এজলাসে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন রাজীব কুমার। সূত্রের খবর, তাতে রাজীব কুমারেরই সই ছিল। শনিবার সেই সংক্রান্ত মামলার শুনানি ছিল আদালতে। দীর্ঘক্ষণ দু’পক্ষের মধ্যে সওয়াল জবাব চলে। রাজীবের আইনজীবী দেবাশীষ রায় ব্যাখ্যা করেন, ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর কীভাবে সারদা মামলা এগিয়েছে।

তাঁর সওয়াল, সিবিআইয়ের চার্জশিট এবং ৬টি অতিরিক্ত চার্জশিটে কোথাও রাজীব কুমারকে অপরাধী বলে উল্লেখ করেনি। কিন্তু তাঁকে কুমির ছানার মতো ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাঁর আইনজীবীর। অন্যদিকে পালটা সিবিআইয়ের আইনজীবী তাঁর সওয়াল জবাবে যান, রাজীব কুমার পলাতক। যিনি কিনা আইনের রক্ষাকারী তিনিই এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। প্রায় কয়েক ঘন্টা ধরে সওয়াল জবাব চলে। শুনানি শেষে আদালত তাঁর নির্দেশে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দেয়।

আদালত রাজীব কুমারের উপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেওয়ার পরই, তাকে গ্রেফতার করতে তৎপর হয়ে উঠে সিবিআই। দিল্লি থেকে কলকাতায় আসেন সিবিআইয়ের বেশ কয়েকজন অফিসার । বেশ কয়েকটি টিমে ভাগ হয়ে খোঁজে চলেছেন রাজীব কুমার কে ।কিন্তু ১০ দিন ধরে হন্যে হয়ে খুঁজেও রাজীবকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তাই সিবিআইয়ের দক্ষতা নিয়েই এবার প্রশ্ন তুলেছেন বিভিন্ন মহলের মানুষ।