ফিলিপাইন্স;  বড়সড় বিমান দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল বোয়িং ৭৭৭। ফিলিপাইন্সের এই বিমান ওড়ার কিছুক্ষণ পরে ডান দিকের ইঞ্জিনে সমস্যা হওয়ার কারণে আগুন ধরে যায়। কিন্তু কোনরকম দুর্ঘটনা না ঘটার আগে সফল ভাবে আকাশ থেকে সেটি নামিয়ে আনেন বিমানচালক।

জানা গিয়েছে, ম্যানিলা যাওয়ার জন্য ওই বিমান উড়েছিল। কিন্তু কিছুদূর যাওয়ার পরে বিমানের ইঞ্জিনে গোলযোগ দেখা দেয়। তারপরে লস আঞ্জেলেস বিমানবন্দরে বিমানটির জরুরি অবতরন করানো হয়। কতৃপক্ষের তরফ থেকে জানা গিয়েছে, বিমানে ৩৪৭ জন যাত্রীর সঙ্গে ১৮ জন বিমান কর্মী ছিলেন। কোন রকম ক্ষতি হওয়ার আগেই বিমানটিকে নামানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, বিমানের ইঞ্জিন থেকে আগুন বেরতে দেখা যাচ্ছিল। তারপরে কোন রকম ঝুকি না নিয়ে বিমানচালক দায়িত্ব নিয়ে বিমানটিকে নামিয়ে এনেছিলেন। স্থানীয় চ্যানেলের তরফ থেকে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছিল যাতে দেখা যাচ্ছিল বিমানটির ডানদিকের ইঞ্জিন থেকে আগুন বেরতে।

যদিও বিমানের কোন ক্ষতি হয়নি। যদিও ইঞ্জিন বিকল হওয়ার কারণ পরিস্কারভাবে না জানা গেলেও কি কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা জানার জন্য তদন্ত চলছে। এছাড়াও অন্য কোন বিমানের উপরেও এই ঘটনার কোন প্রভাব পড়েনি।

আন্দ্রে আমেস জানিয়েছেন দেখা যাচ্ছিল বিমানের পিছনের দিক থেকে ক্রমাগত আগুন বেরচ্ছিল। এইরকম ঘটনা ের আগে দেখেন নি। তারপর বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। আগুন থামার সঙ্গে সঙ্গে বিমানটিও নামানো হয়েছিল।

ফিলিপাইন্স এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র সিয়েলো ভিল্লালুনা জানিয়েছেন বিমানের কর্মীরা প্রথম এই আগুনের ঘটনাটি লক্ষ করেন। আর তারপরে জরুরি অবতরণ করার বিষয়টি জানান। তারপরে বিমানচালক ধীরে সুস্থে বিমানটি নামিয়ে আনেন। বিমানের কোন যাত্রী বা কর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত হননি। অন্য একটি বিমানে করে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয়েছিল বলেও জানিয়েছেন ভিল্লালুনা।