মুম্বই: চিন্তার ভাঁজ ফেলছে করোনা। ভারতে বেড়ে চলেছে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। খবর অনুযায়ী ফের বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। যাদের মধ্যে রয়েছেন ১৭ জন বিদেশি। আর আক্রান্তদের চিকিৎসা যাতে ঠিক ভাবে হয় সেদিকে নজর রাখছে প্রশাসন।

কেন্দ্রীয় সরকারি তথ্য অনুসারে রবিবারে নতুন ১৯ টি ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। যার মধ্যে ১৫ টি মহারাষ্ট্রে। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের দিক থেকে কেরালাকে ছাপিয়ে গিয়েছে মহারাষ্ট্র। এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে ৩৩ জন আক্রান্তের খবর সামনে এসেছে। যে কারণে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সমস্ত স্কুল কলেজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিবসেনা সরকার।

এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্যান অনুসারে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কেরালা। সেখানেও এখনও পর্যন্ত ২৪ জনের আক্রান্তের খবর সামনে এসেছে। এছাড়াও দিল্লি, উত্তর প্রদেশে করোনা আক্রান্তের খবর সামনে সেছে।

ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসকে মহামারী ঘোষণা করেছে গুজরাট সরকার। সেই সঙ্গে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বেশ কিছু আধিকারিকের হাতে প্রয়োজনীয় ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। টিউশন এবং অঙ্গনওয়ারী আগামী ২৯ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে ভারতবর্ষে রীতিমত আতঙ্কের অন্যতম কারণ হিসেবে উঠে আসছে এই করোনা ভাইরাস।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে বুধবার বিশ্ব মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। একের পর এক দেশে ছড়িয়ে পড়ছে এই রোগ। ইতিমধ্যে স্পেনেও করোনা ভয়াবহ আকার নিয়েছে। একদিনে সেখানে এক হাজারেরও বেশি মানুষের শরীরে করোনা ভাইরাসের নমুনা পাওয়া গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সেখানে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।