কলকাতা: বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছবি নিয়ে অপপ্রচার৷ অজানা অপপ্রচারকারীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের৷ শিলিগুড়ি সাইবার থানায় অভিযোগ করেছে বিজেপি যুব মোর্চা৷

ঘটনার সূত্রপাত ১২ জানুয়ারি৷ সেদিন রাজ্যজুড়ে স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তী পালন করা হয়৷ এই উপলক্ষে শিলিগুড়িতে একটি মিছিল বের করে তৃণমূল৷ স্বামী বিবেকানন্দের ছবি নিয়ে মিছিল করা হয়৷ তবে যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিও ছিল বলে জানা গিয়েছে৷ সেই মিছিলের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে, যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দিয়ে লেখা রয়েছে, স্বামী বিবেকানন্দ-এর ১৫৮ তম জন্ম দিবস উদযাপন৷

যুব মোর্চার শিলিগুড়ি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি কাঞ্চন দেবনাথ জানান, ১২ জানুয়ারি যুব তৃণমূলের তরফে স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তীর একটি মিছিল হয়। বিবেকানন্দের জায়গায় তৃণমূল সাংসদ তথা যুব তৃণমূলের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করে প্রথমে স্বামীজিকে অপমান করা হয়েছে। পাশাপাশি আমাদের নেতার নামে অপপ্রচার করা হচ্ছে৷

এরপরই দেখা যায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছবি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অপপ্রচার শুরু হয়ে যায়৷ অভিযোগ, মূল ব্যানার থেকে অভিষেকের ছবি সরিয়ে সেখানে এডিট করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছবি লাগিয়ে প্রচার করা হয়েছে৷ যেখানে দিলীপ ঘোষের ছবির সঙ্গে লেখা রয়েছে স্বামী বিবেকানন্দ-এর ১৫৮ তম জন্ম দিবস উদযাপন৷ এরপরই দু’জনকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় উঠে৷ বিজেপির দাবি,এটা তৃণমূলের কারসাজি৷ যদিও শাসক দল ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছে৷

তবে বিজেপি যুব মোর্চার তরফে বিষয়টি নিয়ে শুধুমাত্র নিন্দা করেই তারা ক্ষান্ত থাকতে চাননি। মঙ্গলবার তারা শিলিগুড়ি সাইবার থানায় গিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তাদের দাবি, যে ব্যক্তি ওই ছবিটিকে এডিট করে দিলীপবাবুর ছবি দিয়ে তাঁদের দলের নামে দুর্নাম ছাড়াতে চাইছে তাকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিক পুলিশ।

অন্যদিকে যুব তৃণমূলের দার্জিলিং জেলা সভাপতি বিকাশরঞ্জন সরকারের দাবি, ছবি এডিটে তৃণমূলের কারও কোনও হাত নেই। তিনি বলেন, “বিজেপি সভাপতির ছবি ব্যবহারের মতো কোনও রুচি তৃণমূলের কারও হবে না। যদি এমন কেউ করে থাকে, পুলিশ নিশ্চয়ই তাকে খুঁজে বের করবে। প্রমাণ হয়ে যাবে, তাঁরা কারা।”

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV