অকল্যান্ড: বিশ্বকাপের পর কিউয়িদের মুখোমুখি টিম ইন্ডিয়া৷ শুক্রবার ইডেন পার্কে টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচ৷ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজকে বিশ্বকাপের মহড়া হিসেবে দেখছে বিরাটবাহিনী৷

গত বছর ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মাটিতে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে কিউইদের কাছে হেরেই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল ভারতকে। তারপর থেকে প্রথমবার নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে টিম ইন্ডিয়া৷ তবে এই সিরিজকে বদলার সিরিজ হিসেবে দেখতে নারাজ ভারত অধিনায়ক৷ হোম টিমকে ‘নাইস’ অ্যাখ্যা দেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷

বৃহস্পতিবার প্রাক্ ম্যাচ সাংবাদিক বৈঠকে ভারত অধিনায়ক জানান, ভারতের সামনে কোনও বদলার লক্ষ্য নেই। নিউজিল্যান্ড ফাইনালে পৌঁছনোয় বরং তাঁরা খুশিই হয়েছিলেন। ইডেন পার্কে প্রথম টি-২০ ম্যাচের আগে কোহলি বলেন, ‘যদি ওদের বিরুদ্ধে কেউ বদলার কথা ভেবে খেলতে নামে, তাহলে তারা নিজের খেলাটা খেলতেই পারবে না।’

২০১৯-এর জুলাইয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ১৮ রানে হেরে ছিটকে যায় ভারত। ম্যাঞ্চেস্টারে বৃষ্টি-বিঘ্নিত ম্যাচ শেষ হয় দু’দিনে। সেমিফাইনালে ভারতের বিরুদ্ধে জিতেও প্রথমবার ফাইনাল খেললেও বিশ্বজয়ের স্বাদ পায়নি নিউজিল্যান্ড৷ ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে নাটকীয়ভাবে হেরে যায় নিউজিল্যান্ড।

প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড সম্পর্কে কোহলি বক্তব্য, ‘সবটাই আসলে মাঠের মধ্যে প্রতিযোগিতায় নামা। ওরা এমন দল যারা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিজেদের পারফরমেন্স ধরে রাখার নজির রয়েছে। ওরা যখন বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেছিল তখন ওদের জন্য ভালো লেগেছিল। কিন্তু ফাইনালে ওরা যেভাবে হেরেছে তা মেনে নেওয়া কঠিন নয়৷ তাই কোনও বদলার মানসিকতা নেই।”

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সিরিজ জয়ের পরের দিনই নিউজিল্যান্ড উড়ে যায় ভারতকে। রবিবার ফাইনাল ম্যাচ খেলেছে বেঙ্গালুরুতে। আর সোমবারই উড়ে গিয়েছে অকল্যান্ডে। মঙ্গলবার অকল্যান্ড থেকে পৌঁছনোর খবরও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন বিরাট।