অটোয়া: কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগোয়ার ট্রুডো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে আশংকা করা হচ্ছে। তার দেহে ফ্লু-এর লক্ষণ দেখা গিয়েছে। এমন ঘটনার জেরে খোদ প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো সেলফ আইসোলেশন চলে গিয়েছেন।

ব্রিটেন থেকে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো এবং তার স্ত্রী দেশে ফেরার পর সোফি গ্রেগোয়ার ফ্লুতে আক্রান্ত হন ৷ এরপরে তাঁকে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। সন্দেহ করা হচ্ছে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্যে আপাতত ওই সব ডাক্তারি পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে।

এই ঘটনায় জাস্টিন ট্রুডো সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং তিনি নিজের বাড়ি থেকেই নিয়মিতভাবে তার দফতরের কাজ করছেন। সংবাদমাধ্যমগুলো যা দেখে এই অবস্থাকে সেল্ফ আইসোলেশন বলে উল্লেখ করেছে। স্ত্রী সোফির ডাক্তারি পরীক্ষার ফলাফল না পেয়ে তিনি অফিসে ফিরবেন না বলে জানিয়েছেন। সম্প্রতি কানাডার প্রাদেশিক এবং টেরিটোরিয়াল মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে জাস্টিন ট্রুডোর বৈঠক থাকলেও তা বাতিল করা হয়েছে।

কানাডায় এরইমধ্যে ১০০ ব্যক্তি করোনাভাইরাসে সংক্রমিত বলে সনাক্ত করা হয়েছে। এরমধ্যে অন্টারিওতে ৪২ জন, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় ৪৬ জন এবং আলবার্টাতে রয়েছেন ১৯ জন বলে জানা গিয়েছে। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে এরইমধ্যে ৪,৬০০ ব্যক্তি মারা গিয়েছেন৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ