অটোয়া: চিনে-মার্কিন বাণিজ্য যুদ্ধ যেখানে গোটা পৃথিবীতেই প্রভাব ফেলছে সেখানেই আবার কানাডার সঙ্গে আমেরিকার বাণিজ্য যুদ্ধ দানা বাঁধছে। আমেরিকার ৩৬০ কোটি ডলার মূল্যের পণ্যের উপর এবার বাড়তি শুল্ক বসানোর সিদ্ধান্ত নিল কানাডা। কানাডা থেকে আমদানি করা অ্যালুমিনিয়াম পণ্যের উপর আমেরিকা শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে বলে ঘোষণা করায় এবার পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানালো কানাডা।

কানাডার উপপ্রধানমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড শুক্রবার সংবাদিকদের জানিয়েছেন, আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে আমেরিকা থেকে আমদানি করা পণ্যের উপর বাড়তি শূল্ক আরোপ করার সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে।

প্রসঙ্গত, ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই কানাডার সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্কের জটিলতা বাড়তে দেখা যায়। তারই ফলস্বরূপ দু’পক্ষের মধ্যে শুল্ক যুদ্ধ শুরু হয়েছে। এক পক্ষ শুল্ক বসালে পাল্টা শুল্ক আরোপের এই ঘোষণা হল তারই বহিঃপ্রকাশ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বৃহস্পতিবার বলেন, কানাডা থেকে আমদানি করা অ্যালুমিনিয়াম পণ্যের উপর আগামী ১৬ অগস্ট থেকে শতকরা ১০ ভাগ অতিরিক্ত শুল্ক আরোপের সিদ্ধান্ত কার্যকরা করা হবে। পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, এই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে কানাডা থেকে অ্যালুমিনিয়াম আমদানির পরিমাণ কমিয়ে মার্কিন শিল্প রক্ষার তাগিদে।

সংবাদ সম্মেলনে ফ্রিল্যান্ড জানান, যখন গোটা বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের মহামারী মোকাবিলা করতে হচ্ছে তখন কোনরকম বাণিজ্য যুদ্ধ খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত যা দু পক্ষের স্বার্থ ক্ষুণ্ন করবে । কিন্তু তারপরেও মার্কিন প্রশাসন সেই পথটাই বেছে নিয়েছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

কানাডার উপপ্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট ভাবে বার্তা দিয়েছেন, পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটাতে চান না, তবে আবার তারা কোনরকম সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়েও আসবে না। মার্কিন প্রশাসন যে পদক্ষেপ নিয়েছে সেটা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা