নয়াদিল্লি: কৃষক বিদ্রোহের পরদিনই বাড়ল গমের সহায়ক মূল্য৷ বুধবার ঘোষণা কেন্দ্রীয় সরকারের৷ এই সহায়ক মূল্য ১০৫ টাকা অর্থাৎ ৬ শতাংশ বাড়ানো হল৷ এখন থেকে প্রতি কুইন্টাল গমের জন্য কৃষকরা পাবেন ১৮৪০ টাকা৷ আগে কৃষকরা পেতেন ১৭৩৫ টাকা৷ বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে হওয়া কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকের পরই এই সিদ্ধান্ত৷

বৈঠকের পর কৃষিমন্ত্রী রাধামোহন সিং সাংবাদিকদের জানান, এরফলে কৃষকদের আয় বেড়ে হবে ৬২,৬৩৫ কোটি টাকা৷ গত আর্থিক বছরে প্রতি কুইন্টাল গমের সহায়ক মূল্যের জন্য কৃষকরা পেতেন ১৭৩৫ টাকা৷ চলতি আর্থিক বছরে সেটা বাড়িয়ে ১০৫ টাকা করা হল৷ এখন থেকে প্রতি কুইন্টাল গমের জন্য কৃষকরা পাবেন ১৮৪০ টাকা৷

গত মাসেই খারিফ শস্যের সহায়ক মূল্য বাড়িয়েছে সরকার৷ এবার পালা রবি শস্যের৷ কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী জানান, রবি ফসল উৎপাদন খরচের ৫০ শতাংশ দাম বাড়ানো হল৷ তারপর মধ্যে রয়েছে গমের সহায়ক মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত৷ কৃষিমন্ত্রী জানান, রবি শস্যগুলি উৎপাদন করতে যা খরচ হয় তার চেয়ে বেশি সহায়ক মূল্য দেওয়া হবে৷ যেমন প্রতি কুইন্টাল বার্লির জন্য কৃষকদের ১৪৪০ টাকা দেওয়া হয়৷ ছোলার ক্ষেত্রে ২২০ টাকা সহায়ক মূল্য বাড়ানো হয়েছে৷ প্রতি কুইন্টাল ছোলার জন্য কৃষকদের ৪৬২০ টাকা সহায়ক মূল্য দেওয়া হয়৷

লোকসভা ভোটের আগে কৃষক বিক্ষোভ চিন্তায় রেখেছে মোদী-শাহ জুটিকে৷ এর আগে একাধিকবার কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষক নীতির বিরোধিতায় পথে নামে কৃষক সংগঠনগুলি৷ মঙ্গলবার গান্ধী জয়ন্তীর দিনও মিছিল করে তারা রাজঘাটের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করে৷ তাতে বাধা দেয় পুলিশ৷ এই নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে রাজধানী৷ পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন কৃষক নেতারা৷ সেই বৈঠক ইতিবাচক হওয়ায় আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেন তারা৷ তারপরের দিনই সরকারের কৃষক দরদী প্রমাণের চেষ্টা৷